Tuesday, October 24, 2017

ছেলেদের যে ১০টি ভুলে প্রেম এসেও ভেঙে যায়

লাইফস্টাইল ডেস্ক : প্রেম শুরু করা যেমন কঠিন, তেমনই কঠিন সেই প্রেমকে টিকিয়ে রাখা। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ছেলেদের ভুলেই ভেঙে যায় সম্পর্ক।১। সম্পর্কের শুরুতেই যদি প্রেমিকার খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে অতিরিক্ত ঘাঁটাঘাঁটি করেন তবে সম্পর্ক আর এগোবেই না।২। প্রেমিকার সব কথা অক্ষরে অক্ষরে মেনে নেওয়াটা মেয়েরা একেবারেই ভাল চোখে দেখেন না। মুখে যতই বলুক।৩। সম্পর্কের অল্পদিনের মধ্যেই বেশি অধিকারবোধ দেখাতে গেলে হিতে বিপরিত হবে।৪। কাজের যতই চাপ থাকুক, মাঝেমধ্যে মেসেজ পাঠাতে হবে। অনেক ছেলেই ভেবে নেয় ‘সে’ আমার হয়ে গিয়েছে। ভুলে যায় চারা গাছে জল দিতে হয়।৫। আবার ঘন ঘন ফোন করে, মেসেজ পাঠিয়ে প্রেমিকাকে বিরক্ত করে দেন অনেকে। সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে যায়।৬। সব সময় খরচ হলেই মানিব্যাগ বের করে ফেলাটা মোটেও ভালভাবে নেন না মেয়েরা। এতে তাঁদের ছোট করা হয়।৭। আবার বারবার বিল মেটানোর দায়িত্ব প্রেমিকার ঘাড়ে চাপানোও ঠিক নয়। কিপটে ভেবে পিঠটান দেবেন প্রেমিকা।৮। অতীত প্রেম নিয়ে বেশি কৌতূহল না দেখানোই ভাল। নিজেরটা যেমন চেপে গিয়েছেন, অপরের খোঁজ নেয়ওয়ারই বা দরকার কী!৯। পুরনো প্রেমিকের কথা জেনে গেলেও, তাঁর সমালোচনা করবেন না। এতে আপনার সম্পর্কেই খারাপ ধারণা তৈরি হবে।১০। শরীরের জন্য হ্যাংলামো একদম ঠিক নয়। অত তাড়া কীসের! বেশিরভাগ ছেলেই এইকরে প্রেম হারান।
Share:

পুরনো মোবাইলও দ্রুত চার্জ হবে, জেনে নিন সহজ উপায়

এক নজরে দেখে নিন, চার্জিংয়ের সময়ে কী কী করলে ফোন দ্রুত চার্জ করা যায়।Some tips for charging phone fasterদ্রুত চার্জ করে নিন ফোন। প্রতীকী চিত্র, ছবি- থিংকস্টকনতুন ফোন কেনার পরে চার্জিং নিয়ে সেভাবে সমস্যা হয় না। কিন্তু ফোন একটু পুরনো হতে শুরু করলেই সমস্যার সূত্রপাত। ফোনের ব্যাটারি চার্জ হতেই অনেকটা সময় নষ্ট হয়ে যায়।একটি সর্বভারতীয় হিন্দি দৈনিকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, এমন কিছু পদ্ধতি রয়েছে, যেগুলি মানলে ফোন দ্রুত চার্জ করা সম্ভব। যেমন, ফোন একটু পুরনো হলে নিয়মিত সেটিকে আপডেট করান। এর ফলে ফোন যেমন স্লো হবে না, ফোনের ব্যাটারিও ভাল থাকবে। ব্র্যান্ডেড চার্জার ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। কম্পিউটার বা ওয়ারলেস চার্জিং করলেও চার্জ হতে সময় বেশি লাগে। ফলে প্লাগ পয়েন্ট থেকে ফোন চার্জ করাই শ্রেয়।এই বিষয়ে অন্যান্য খবরএক নজরে দেখে নিন, চার্জিংয়ের সময়ে কী কী করলে ফোন দ্রুত চার্জ করা যায়—• ফোন চার্জে বসানোর সময়ে ব্যাটারি সেভিং মোড অন করে দিতে পারেন।• ফোন চার্জ করার সময়ে ফ্লাইট মোড অ্যাক্টিভেট করে দিন। এর ফলে কলিং, ইন্টারনেট, জিপিএস সবই বন্ধ থাকবে।• যেখানে ফোন চার্জ করছেন সেই জায়গাটি খুব গরম বা ঠান্ডা হলে চার্জিংয়ে বেশি সময় লাগে। অতিরিক্ত গরমে ফোন চার্জ করলে ফোনের তাপমাত্রাও বেড়ে যায়। ফলেঅত্যন্ত ধীর গতিতে ফোন চার্জ হয়।• ফোন যদি অফ করে চার্জ দেন, তা হলেও সেটি দ্রুত চার্জ হবে।
Share:

যে ৫ টি ভুলের জন্য আপনার ফোন গরম হচ্ছে

বাজারে এখন স্মার্টফোনের ছড়াছড়ি। শতাধিক ব্রান্ডের এসব স্মার্টফোন দিন দিন দাম কমছে। সেই সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে নিত্য-নতুন সমস্যা। ডিসপ্লে, ব্যাটারি নিয়ে সমস্যার পাশাপাশি স্মার্টফোনের একটি বহু পরিচিত সমস্যা হল ‘হিটিং ইস্যু’৷কিছুক্ষন ইন্টারনেট সার্ফিং করার পর বা কথা বলার পর স্মার্টফোন গরম হয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে মাইক্রোম্যাক্স, সোনি, ওয়ান প্লাস, লেনোভো, শাওমি, ইউফোরিয়ার মতো স্মার্টফোনের মডেল অল্প ব্যবহারেই গরম হয়ে যাচ্ছে বলে বহু অভিযোগ জমা পড়ছে সংস্থাগুলির দফতরে।আপনার সাধের স্মার্টফোনেও কি এই সমস্যা হচ্ছে? তাহলে জানুন, কী করলে এই সমস্যার হাত থেকে মুক্তি মিলবে-১. লোকেশন ও ব্লু-টুথ ফাংশন বন্ধ করুন৷ স্মার্টফোনের ‘সেটিংস’ অপশনে গিয়ে লোকেশন ‘ডিসেবল’ করে দি।৷ ফাইল ট্রান্সফার করা হয়ে গেলে বন্ধ করে দিন ব্লু-টুথও। লোকেশন সেটিংস ‘অন’ থাকলে আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারি খরচ হয় ওস্মার্টফোন গরম হতে শুরু করে।২. বেশিক্ষণ ইন্টারনেট সার্ফিং করতে হলে ‘থ্রি-জি’ বা ‘ফোর-জি’ পরিষেবা ব্যবহার করুন। ‘টু-জি’ ইন্টারনেট পরিষেবা আপনার স্মার্টফোনের টাওয়ার সিস্টেমকে আরও কাজ করতে বাধ্য করে বলে ফোন বেশি গরম হয়।৩. একসঙ্গে বহু অ্যাপস ব্যবহার করবেন না। কম দামি ফোনে একসঙ্গে ৪-৫ টি অ্যাপস চালু রাখলে ‘প্রসেসর’ গরম হতে থাকে। যার ফলে ফোন গরম হয়ে ওঠে।৪. স্মার্টফোনে যত অ্যাপস রয়েছে-সেগুলি আপডেটেড রয়েছে কি না, ভাল করে দেখে নিন। অ্যাপস-এর আপডেটেড ভার্সনে সমস্যা কম থাকে। ফোনও ভাল থাকে, গরম হয় না।৫. নকল ব্যাটারি ব্যবহার করবেন না।৬. প্রয়োজন না পড়লে ফোনের ওয়াই-ফাই বন্ধ রাখুন।৭. যে অ্যাপস দরকার নেই, জলদি ‘আন-ইনস্টল’ করুন।৮. হাই গ্রাফিক্স ইনটেনসিভ গেমস বেশিক্ষণ খেললে ফোন গরম হবে। স্মার্টফোনকে ঠান্ডা রাখতে তাই বেশিক্ষণ গেমস খেলবেন না।৯. যেখানে নেটওয়ার্ক নেই, সেখানে বারবার নেটওয়ার্ক ‘ম্যানুয়ালি’ সার্চ করলে ফোন গরম হয়। তাই যখন ফোনে নেটওয়ার্ক পাবেন না, ‘অটোমেটিক’ মোড অন করুন।১০. চার্জে বসিয়ে স্মার্টফোন ব্যবহার করবেন না। এই নিয়মটি আপনাকে মেনে চলতেই হবে। কারণ, ফোন চার্জে বসিয়ে গেমস খেললে বা ভিডিও দেখলে ফোনের প্রসেসরে অত্যাধিক চাপ পড়ে। এতে ফোনেরদীর্ঘমেয়াদী ক্ষতি হয়। ফোন সহজেই গরম হয়ে ওঠে।
Share:

যে বিষয়গুলো ইসলামে সহবাসে সম্পূর্ন নিষিদ্ধ

ইদানীং নারী পুরুষের বিবাহিত সেক্সুয়াল লাইফ এ কিছু কিছু সমস্যা প্রকট আকারে সামনে চলে এসেছে ।বিবাহিতজীবন গড়াচ্ছে ডিভোর্স পর্যন্ত ।অস্বাভাবিক সেক্সুয়াল লাইফের বলি হিসেবে মহিলারা মারাত্মক স্বাস্থ্য সমস্যা পি , আই , ডিতে ভুগছেন । মেডিকেল ট্রিটমেন্ট ফেইলুরের পর সার্জারি করেও শেষ রক্ষা হয়না । ব্যথাময় এক জীবনবয়ে বেড়ান ।পুরুষ নারী নির্বিশেষে যৌনবাহিত অসুখবিসুখ তো আছেই ।আর মনের উপর যে ভয়াবহ চাপ পড়ে মেন্টাল ট্রমা তৈরি হয় সে প্রসঙ্গ নাই বা বললাম, মনের ব্যাপারটাতো চির উপেক্ষিত আমাদের সমাজে ।কথা হল , একজন কনজারভেটিভ আর নতুন প্র্যাকটিসিং মুসলিম সর্বোপরি একজন ডাক্তার হিসেবে সমস্যাগুলো দেখে , রবি গুরুর ব্রজেশ্বরের মত জঞ্জাল দেখে পাশকাটিয়ে চলে যাব , নাকি সুকান্তের মত , “ প্রাণ পণে সরাব জঞ্জাল “ আসলে সময় এসেছে কিছু কিছু ব্যাপারে শালীনতার মধ্য থেকেই আলোচনা করার । কারণ আমরা অনেক কিছুই জানিনা ।আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা এমন, দীর্ঘ ১২ বছর পড়াশুনা করে এইছ , এস , সি পাশ দিলেও কেউ না পারে ইহকালে রুটি রোজগারের ব্যবস্থা করতে , আর না হয় তার নৈতিক জ্ঞান ,যা দিয়ে সে বাকি জীবন সঠিক ভাবে চলার দিক নির্দেশনা পাবে । মাছি মারা কেরানী ছাড়া আর কিছুই হতে পারিনা আমরা । পরবর্তী উচ্চশিক্ষায় ও নৈতিক বিষয়টিকোন স্থান পায়না । তাই আমাদের জ্ঞানের অভাব আমাদের শিক্ষাব্যবস্থার দৈন্যতার উপরেই বর্তায় ।তবুও একটি আশাবাদী কথা দিয়েই শুরু করি । আপনি কি জানেন ? মুসলিমদের সেক্সুয়াললাইফকে মেডিকেলে খুবই এপ্রিশিয়েট করা হয় । গাইনি মেডিকেল বই এ মুসলিম সেক্সুয়াল বিহেভিয়ারের প্রশংসা করে লেখা থাকে , “মুসলিম ছেলেদের সারকামসেশন ( মুসলমানি ) করা থাকে তাই তাদের স্ত্রীর অমুক অসুখ কম হয় । অথবা সেক্সুয়াল ইন্টারকোর্স এ মুসলিম রা অমুক নিয়মটি ফলো করে তাই তাদের অমুক অসুখটি কম হয় । ““ মুসলিমদের কি সেক্সের আলাদা নিয়ম আছে?!? “ ঝট করে প্রশ্নটি মনে জাগে ।আমার পরম শ্রদ্ধেয় সার্জারির প্রফেসরের উক্তি মনে পড়ে গেলো । সদা হাস্যময়ী স্যার বলেছিলেন , (নবজাতকের মায়ের দুধ পান করা ) ( সেক্স করা) মানুষ শিখে যায় , এটা কাউকে শিখাতে হয় না । “এখানেই কথা আছে কিন্তু। রিফলেক্সলি ঠিক জিনিসটি শিখার আগেই প্রযুক্তির অকল্যাণে বিধ্বংসী কিছু পারভার্সন ঢুকে গেছে স্বাভাবিক যৌন জীবনে ।কিভাবে ? ইন্ডিয়ার কিছু চটি সাইট আছে ওগুলোর মূল ভিজিটর বাংলাদেশি । আর ইন্ডিয়ান ভিজিটর বাংলাদেশের ভিজিটরেরঅর্ধেকের ও কম । আর অনলাইন সংবাদ মাধ্যম গুলোর মূল ভিজিটর আসে অশালীন রগরগে সংবাদগুলো থেকে ।তারা দেশে এরকমসংবাদ না পেলে বিদেশ থেকে সংবাদ আমদানি করে । লক্ষ্যকরে থাকবেন এই রোজার মাসেও ভিজিটরের লোভে সানি লিওনের সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত হয়নি । মোবাইলে মোবাইলে অশালীন ভিডিও সহজে কিনতেও পাওয়া যায় যারা নেট ইউজ করেনা তাদের সুবিধার জন্য ।তাহলে বুঝাই যায় মুসলিম প্রধান দেশ হওয়া স্বর্তেও পর্ণোগ্রাফী বাংলাদেশেদারুণ জনপ্রিয় । আর পর্ণো পড়ার সময় বা দেখার সময় আমাদের কয়জনের মনে থাকে,এগুলি কিন্তু গুনাহ । চোখের ব্যভিচার ।এই সহজলভ্য পর্ণো আর চটিসাইট গুলো মানুষের স্বাভাবিক যৌন জীবন কে অস্বাভাবিকতা দিয়ে রিপ্লেস করে দিয়েছে ।সংসার জীবনে নেমে এসেছে অশান্তি ।“ ভালবেসে স্ত্রীর দিকে তাকালেও সোয়াব “ এই সব হাদিস উঠে গিয়ে এসেছে ।“মানুষ সেক্সুয়াল লাইফ নিয়ে পুরোই বেদিশা । তারা শুধু ছুটছে । “ কই আমিতো পর্ণো ছবির পুরুষ বা মহিলাটির মত আনন্দে আত্মহারা হলাম না ।হয়ত আমার ওয়াইফ বা হাসবেন্ড ঠিক পারছেনা ।কোথায় ? কোথায় আছে সেই সোনার হরিণ । কোথায় সেই আনন্দের ফোয়ারা ? সবাই পায় , আমি পাই না কেন ? “বিবাহ বহির্ভূত সেক্স, হোমোসেক্সুয়ালিটি , এনাল সেক্স মহামারির মত ছড়িয়ে গেছে । দুনিয়াতে এত মজা নিলে আখেরাত কিন্তু অন্ধকার । আজ আমরা জানবো ইসলামে সেক্সুয়াল বিহেভিয়ার এ ৪ টি নিষিদ্ধ ক্ষেত্র ।বিবাহ বহির্ভূত সেক্স :এর কারণে সিফিলিস , গনোরিয়া , ক্ল্যামাইডিয়া , মোনিলিয়াসিস , ট্রাইকোমোনিয়াসিস , ব্যাকটেরিয়াল ভেজাইনোসিস , জেনিটাল হার্পিস , জেনিটাল ওয়ার্টস প্রভৃতি সমস্যা আর তাদের কমপ্লিকেশন তো আছেই । সারভাইক্যাল ক্যন্সার ( জরায়ু মুখের ক্যান্সার ) যার মূল কারণ হিউমেন প্যাপিলোমা ভাইরাস তাও ট্রান্সমিট হয় । আর ঘাতক ব্যাধি এইডস তো আছেই ।আল্লাহ তায়ালা ঘোষণা করেন , “ তোমরা ব্যভিচারের নিকটেও যেওনা , কারণ এটি অশ্লীল ও মন্দ পথ ।‘ ( সূরা বনী ইসরাইল , ৩২)# যে মুহাররামাত মহিলার সাথে যিনা করবে তার হুকুম ঃযে ব্যক্তি কোন মুহররামাত ( যাদেরকে বিবাহ করা হারাম ) যেমন – আপন ,বোন , কন্যা ও বাবার স্ত্রী ইত্যাদি এর সাথে হারাম জানা স্বর্তেও যিনা করবে তাকে হত্যা করা ফরজ ।বারা ইবনে আজেব (রা ) হতে বর্ণিত , তিনি বলেন , “ আমার চাচাকে ঝান্ডা উড়িয়ে নিয়ে যাচ্ছে দেখে বললাম ঃ কোথায় চলেছেন ? তিনি বললেন- আমাকে রাসুল করিম ( সাঃ ) প্রেরণ করেছেন ঐ মানুষের নিকট যে তার বাবার স্ত্রীকে বিবাহ করেছে । তিনি ( সাঃ ) আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন তার গর্দান উড়িয়ে দেয়ার জন্য এবং সমস্ত সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার জন্য । ( সহীহ হাদিস , তিরমিজি হাদিস নং ১৩৬২ , নাসাঈ হাদিস নং ৩৩৩২ ) ।তাহলে ইনচেস্ট ভর্তি পর্নো চটি সাইট গুলো আমাদের নিজেদের ঐতিহ্য বাহী মূল্যবোধ সম্পন্ন সম্পর্ক গুলোকে কোথায় নিয়ে চলেছে ?সমকামিতা :লূত (আঃ ) এর সময়ের আগে পৃথিবীতে হোমোসেক্সুয়ালিটি ছিলনা । সমকামিতা চরিত্র আর স্বভাব বিধ্বংসী এক জঘন্যতমঅপরাধ ইসলামের দৃষ্টিতে । লূত ( আঃ ) এর জাতি এ অপকর্ম করার জন্য আল্লাহ তায়ালা তাদেরকে মাটিতে ধ্বসিয়ে দিয়েছেন । তাদের উপর পাথর বৃষ্টি নিক্ষেপ করেছেন । এ ছাড়া শেষ বিচারের দিনেও তাদের জন্য আছে যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি ।আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন , “ এবং আমি লূতকে পাঠিয়েছি । যখন সে নিজ জাতিকে বলল- তোমরা কি এমন অশ্লীল কাজ করছ , যা তোমাদের পূর্বে গোটা বিশ্বের কেউ করেনি ? তোমরাতো কামবশতঃ পুরুষের নিকট গমন কর মহিলাদের ছেড়ে । এবং তোমরা সীমাঅতিক্রম করেছো । [ সূরা আরাফ ৮০-৮৪ ] আল্লাহ তায়ালা ঘোষণা করেন- “ অবশেষে যখন আমার আদেশ পৌঁছল , আমি উক্ত জনপদকে উপুড় করে নীচ করে দিলাম এবং তার উপর স্তরে স্তরে কাঁকর পাথর বর্ষণ করলাম । যার প্রতিটি তোমার রবের কাছে চিহ্নিত ছিল । এবং পাপিষ্ঠ দের কাছ থেকে বেশি দূরেও নয় । “( সুরা হূদ ৮২-৮৩)আর রাসুল ( সাঃ ) বলেন , “ তোমরা লূতের জাতির কর্ম অবস্থায় যাকে পাবে তার কর্তা এবং কর্ম উভয়কে হত্যা করবে । ( সহীহ হাদিস আবু দাউদ হাদিস নং ৪৪৬২ , তিরমিযী হাদিস নং ১৪৫৬)হোমোসেক্সুয়ালিটি জন্মগত ভাবে আসে , হোমোদের এমন আজব কথা তাদের নিজেদের আবিষ্কার ।মলদ্বার :অনেক রকম মাইক্রোওর্গানিজম দিয়ে পূর্ণ । আনহাইজিনিক সেক্সুয়াল ইন্টারকোর্সের কারণে ফিমেল পার্টনার ভয়াবহ রকমের পি, আই , ডি তে আক্রান্ত হয়েযায় । এনাল ফিসার , পাইলস হবার ঝুঁকি বাড়ে । এনাল স্ফিংটার এর স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা নষ্ট হয় ।হাদিসে আছে , “ যে ব্যক্তি তার স্ত্রীর সাথে এনাল সেক্স ( নিতম্বে সহবাস ) করবেআল্লাহ তার দিকে তাকাবেন না । “ ( নাসাঈ আল ইশ্রাহ ২/ ৭৭- ৭৮/১ ; তিরমিযী ১/২১৮ )হাদিসে আরো আছে , “ যে ব্যক্তি স্ত্রীর সাথে নিতম্বে সহবাস করবে সে লা’নত প্রাপ্ত “ ( আবু দাউদ ২১৬২ , আহমদ ২/ ৪৪৪, ৪৭৯ )( পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে আর সন্তান জন্মদানের পরবর্তী ৪০ ( ৪৫) দিনের মধ্যে সহবাস )পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে নরমাল ডিফেন্স মেকানিজম নষ্ট হয়ে যায় । মহিলাদের প্রজনন অঙ্গের স্বাভাবিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় । একই ঘটনা ঘটে সন্তান জন্মদানের পরবর্তী ৪০-৪৫ দিন । আর এসময়ের সেক্সুয়াল ইন্টারকোর্স প্রজনন অঙ্গ গুলোতে ভয়াবহ ইনফেকশন ঘটায় লোকাল অর্গানিজম ।স্ত্রীর হায়ে্য ( পিরিয়ড ) চলাকালীন তার সাথে সহবাস করা স্বামীর জন্য হারাম । ( ফথুল কাদীর , ১/২০০ )আল্লাহ তায়ালা বলেন , “ আর তারা তোমার নিকট হায়ে্য প্রসঙ্গে জিজ্ঞেস করে । তাহলে বলে দাও এটা অশুচি বা কষ্ট । কাজেই তোমরা হায়েয চলাকালীন সময় সহবাসথেকে বিরত থাক । তখন পর্যন্ত তাদের সাথে সহবাস করবেনা , যতক্ষণ না তারা পবিত্র হয়ে যায় ।যখন তারা ভালোভাবে পবিত্র হয়ে যাবে , তখন তাদের নিকটে যাও যেভাবে আল্লাহ নির্দেশ দিয়েছেন । নিশ্চয় আল্লাহ তওবাকারি কে ভালবাসেন এবং অপবিত্রতা থেকে যারা বেঁচে থাকে তাদেরও ভালবাসেন। ( সুরা আল বাকারাহ ২২২ )এ প্রসঙ্গে রাসুল (সাঃ ) বলেন , ‘ যদি কোন ব্যক্তি হায়েযাহ নারীর সাথে বা তার নিতম্বে সহবাস ( এনাল সেক্স) করে , জ্যোতিষীর নিকট যায় আর জ্যোতিষীর কথা বিশ্বাস করে তাহলে সে মুহাম্মদ (সাঃ ) এর প্রতি যা নাযিল হয়েছে তার প্রতি কুফরি করল । “তাহলে এই হল চারটি বিধি নিষেধ ।উপসংহার হিসেবে কয়েকটি কথা বলি । জাতি হিসেবে আমরা হীন মন্যতায় ভোগা জাতি । নিজের দেশ ভাল লাগেনা । গরীব । নিজের ভাষা ভাল লাগেনা । টিভি , এফ,এম রেড
Share:

জেনে নিন যৌন সম্পর্কে কোন দেশের নারী পুরুষের অবস্থান কত

বিশ্বের সবচেয়ে যৌন আবেদনময়ী নারীদের তালিকায় দ্বিতীয়তেই আছে ভারতের নাম। সম্প্রতি বিশ্বজুড়ে হওয়া এক জরিপে এমন তথ্য পাওয়া গেলো। তবে শুধু নারীরাই নন, কামসূত্রের দেশে ভারতীয় পুরুষরাও পিছিয়ে নেই। বিশ্বের সেরা আবেদনময় পুরুষের তালিকাতেও দ্বিতীয় স্থানে আছে ভারত।যদিও ভালোবাসায় নম্বর দেয়া যায় না। কিন্তু অনুভূতি বলে অন্য কথা। যৌন সম্পর্কে কোন পুরুষ সেরা বা কোন নারী সেরা, তা শুধুমাত্র সঙ্গীরাই বলতে পারবেন। এবার সেই হিসেব বিশ্বের কাছে উন্মোচিত হলো। বিশ্বের মধ্যে কোন দেশের পুরুষ আবেদনময়, কোথাকার নারী মোহময়ী তা নিয়ে একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে সম্প্রতি। এই জরিপটি করেছিল সসি ডেটস নামের একটি সংস্থা। প্রায় ২২ হাজার ৭৫৩ জনের উপর এই জরিপ চালায় তারা। উত্তরদাতাদের উপর ভিত্তি করে রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়, যাতে দ্বিতীয় অবস্থান দখল করে নিয়েছেন ভারতীয় নর-নারীরা।জরিপের ভিত্তিতে জানা যায়, সেরা আবেদনময় পুরুষের তালিকায় সবচেয়ে উপরে আছে অস্ট্রেলিয়া। এর সঙ্গে আছে আরও ২টি দেশ। আমেরিকা ও দক্ষিণ আফ্রিকা। নারীদের মধ্যে এগিয়ে আছেন কানাডা, ফ্রান্স, ইতালি, আমেরিকানরা। এই তিন দেশের পুরুষ ও নারীরা ১০ এর মধ্যে ৮ পেয়েছেন। গবেষণা অনুসারে এরাযৌন সম্পর্কে অসাধারণ। যৌন সম্পর্কে এদের কাছ থেকে সচরাচর কেউ অখুশি হন না।এর পরেই আছে ভারতের নাম।ভারতীয় মেয়েরা এক্ষেত্রে পেয়েছেন ৭। যৌনতায় কানাডিয়ান বা ফরাসী ললনাদের মতো না হলেও, যৌনতা নিয়ে ভারতীয়রাও খুব কামুক ও উৎসাহী। ভারতের সঙ্গে দ্বিতীয় স্থানে আছে জার্মানি। দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও নম্বরে একটু পিছিয়ে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও আমেরিকা। এদের নম্বর ৬। তবে ভারতীয় নারীদের পাশাপাশি পুরুষরাও কিন্তু দ্বিতীয় স্থানেই আছেন। পরীক্ষায় তারা পেয়েছেন ৭ নম্বর। তালিকায় ভারতের সঙ্গে আছে কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি ও স্পেন।যৌন সম্পর্কের দিক থেকে এর পরেই আছে আমেরিকার পুরুষরা। মহিলাদের ক্ষেত্রেআছে অস্ট্রেলিয়া, নিউডিল্যান্ড ও স্পেন। এক্ষেত্রে একটি কথা বলা দরকার।নিউজিল্যান্ডের মহিলারা কিন্তু পুরুষের থেকে এগিয়ে আছেন। তালিকায় সবচেয়ে নিচে আছে নিউজিল্যান্ডের পুরুষরা। যৌনতায় তারা নাকি খুব খারাপ।তবে সেখানকার মেয়েদের ক্ষেত্রে চিত্রটা অন্যরকম।
Share:

কোন স্ত্রীর ওপর ফেরেশতারা সারারাত অভিশাপ দিতে থাকে জানেন তা?

আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, “যখন কোনো স্বামী তার স্ত্রীকে স্বীয় শয্যা গ্রহণ বা দৈহিক মিলনের জন্য আহবান জানায়, কিন্তু স্ত্রী তাঅস্বীকার করায় স্বামী তার ওপর ক্রুদ্ধহয়ে রাত কাটায়, তখন ফিরিশতাগণ সকাল পর্যন্ত ঐ স্ত্রীর ওপর অভিশাপ দিতে থাকে”। [সহীহ বুখারী; সহীহ মুসলিম; মিশকাত, হাদীস নং ৩২৪৬]অনেক মহিলাকেই দেখা যায় স্বামী-স্ত্রীতে একটু খুনসুটি হলেই স্বামীকে শাস্তি দেওয়ার মানসে তার সঙ্গে দৈহিক মেলামেশা বন্ধ করে বসে। এতে অনেক রকম ক্ষতি দেখা দেয়। পারিবারিক অশান্তির সৃষ্টি হয়।স্বামী দৈহিক তৃপ্তির জন্য অবৈধ পথও বেছে নেয়, অন্য স্ত্রী গ্রহণের চিন্তাও তাকে পেয়ে বসে। এভাবে বিষয়টি হিতে বিপরীত হয়ে দাঁড়াতে পারে।সুতরাং স্ত্রীর কর্তব্য হবে স্বামী ডাকামাত্রই তার ডাকে সাড়া দেওয়া। রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, “যখন কোনো পুরুষ তার স্ত্রীকে তার সঙ্গে দৈহিক মিলনের জন্য ডাকবে, তখনই যেন সে তার ডাকে সাড়া দেয়।এমনকি সে যদি ক্বাতবের পিঠেও থাকে। ” [যাওয়াইদুল বাযযার ২/১৮১ পৃ; সহীহুল জামে, হাদীস নং ৫৪৭] ‘ক্বাতব’ হচ্ছে, উঠের পিঠে রাখা গদি যা সওয়ারের সময় ব্যবহার করা হয়ে থাকে।স্বামীরও কর্তব্য হবে, স্ত্রী রোগাক্রান্ত্র, গর্ভবতী কিংবা অন্য কোনো অসুবিধায় পতিত হলে তার অবস্থা বিবেচনা করা। এতে করে তাদের মধ্যে সৌহার্দ্য বজায় থাকবে এবং মনোমালিন্য সৃষ্টি হবে না।
Share:

জানেন, সঙ্গমের স্বপ্ন আপনার বাস্তব জীবনে কী সংকেত দেয়?

মিলনের স্বপ্ন দেখেছেন কখনও? উত্তরে যাঁরা ‘হ্যাঁ’ বলবেন তাঁদের সংখ্যা নেহাত কম নয়। সঙ্গমের স্বপ্নে কখনও ধরা দেন চেনা মানুষ তো কখনও মুখটা হয় অত্যন্ত অচেনা। কখনও সমলিঙ্গের প্রতি আকর্ষণ, তো কখনও আবার খুব কাছের বন্ধুকেই মিলনের সঙ্গী হিসেবে দেখেন অনেকে। কিন্তু চোখ খুলতেই ব্যস্ত জীবনে সেসব নিয়ে আর ভাবেন না। স্বপ্নকে স্বপ্নলোকেই ঠেলে দিয়ে বাস্তবের মাটিতে দাঁড়িয়ে পড়েন। কিন্তু স্বপ্নগুলি শুধুই কি স্বপ্ন? ভেবে দেখেছেন, এমন স্বপ্ন কেন দেখছেন? কী ইঙ্গিত দেয় এগুলি? আসলে ভিন্ন সঙ্গমের স্বপ্নের সংকেতও আলাদা আলাদা। যার সঙ্গে জড়িয়ে থাকে আপনার ব্যক্তিত্ব, ভাবনা, আকাঙ্ক্ষার দিকগুলি। এমনই কিছু মিলনের স্বপ্নের ব্যাখ্যা রইল এই প্রতিবেদনে।অচেনা ব্যক্তির সঙ্গে সঙ্গম:এমনটা হতেই পারে যে আপনি স্বপ্নে এমন এক ব্যক্তির সঙ্গে মিলনে লিপ্ত হয়েছেনযিনি আপনার কাছে অচেনা। আপনার বাস্তব জীবনে তাঁকে কখনও দেখেননি। সেক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে সেই ব্যক্তির চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য। তিনি যদি দুর্বল ব্যক্তি হন তার মানে আপনার ব্যক্তিত্ব দুর্বল। আর সুঠাম পুরুষ হওয়ার ইঙ্গিত সঠিক ব্যালেন্স রেখেই বৃদ্ধি পাচ্ছে আপনার ব্যক্তিত্ব।ধর্ষণ:সাধারণত মহিলাদের ক্ষেত্রে এ ধরনের স্বপ্নের কথা বেশি শোনা যায়। এখানে তাঁদের কথা বলা হচ্ছে যাঁদের বাস্তব জীবনে ধর্ষণের মতো ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির শিকার হতে হয়নি। ঘুমের মধ্যেই ঘাম হয়, অনেকের ঘুম ভেঙেও যায়। এমন স্বপ্নের অর্থ শারীরিক অথবা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন আপনি। তা সে যে কোনও কারণে হতেপারে। অফিসের চাপ, বাড়ির চাপ, অপ্রত্যাশিত সন্তান জন্মের চাপের মতো ঘটনার কারণে এ ধরনের স্বপ্ন দেখে থাকেন অনেকে। হতাশা, দুর্বলতা, ভয়, অপমানের মতো বিষয়গুলির জন্যই ধর্ষণের স্বপ্ন আসে।RAPEপ্রাক্তনের সঙ্গে সঙ্গম:সঙ্গমের স্বপ্নের এটি অত্যন্ত পরিচিত একটি রূপ। নারী-পুরুষ নির্বিশেষে এ স্বপ্ন দেখে থাকেন। আর অধিকাংশই এর অর্থ খুঁজে বের করেন, প্রাক্তনের সঙ্গে হয়তো সম্পর্ক গড়ার বাসনা নতুন করে জন্মেছে। এমনটা ভাবলে ভুল ভাবছেন।আসলে এ স্বপ্নে প্রাক্তন প্রেমিক বা প্রেমিকার কোনও ভূমিকা নেই। রয়েছে আপনার ইচ্ছার। হয়তো নতুন পার্টনারের সঙ্গেও আপনি সেভাবেই সঙ্গমে লিপ্ত হতেচান, যেভাবে স্বপ্নে ধরা দিয়েছেন। আপনার আকাঙ্ক্ষাই এই অবচেতন মনের মূল বক্তব্য।সমলিঙ্গের সঙ্গে সঙ্গম:খোলা চোখের বাস্তবে আপনি স্ট্রেট। সমলিঙ্গের প্রতি একেবারেই যৌন আসক্তি নেই। তা সত্ত্বেও কাছের বন্ধু (পুরুষের ক্ষেত্রে) বা বান্ধবীর (মহিলাদের ক্ষেত্রে) সঙ্গে মিলনের স্বপ্ন আপনাকে বিভ্রান্ত করেছে। নিজের ব্যক্তিত্ব নিয়ে বেশ চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। ভয় পাওয়ার বা চিন্তার কারণ নেই। ভেবে দেখুন যাঁকে নিয়ে এই স্বপ্নটি দেখলেন সম্প্রতি তাঁর কোনও কাজ বা স্বভাব আপনার মন ছুঁয়েছে কিনা। আপনিও হয়তো সেই কাজ করতে ইচ্ছুক অথবা একই চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের সন্ধানী। এই কারণেই এমন স্বপ্ন আসে অবচেতন মনে।sex-bed-hot-modelঅপছন্দের ব্যক্তির সঙ্গে সঙ্গম:বাস্তবে তাঁকে হয়তো দুচোখে দেখতে পারেন না। সাপে নেউলে সম্পর্ক। অথচ স্বপ্নে এমন অদ্ভুতভাবে ধরা দিল সে। এর অর্থ হতে পারে, ওই মানুষটির সঙ্গে আপনি বিবাদ মিটিয়ে নিতে চান। অথবা তাঁর কোনও একটি বিষয়কে আপনি হিংসা করেন। তা চাকরিও হতে পারে বা সৌন্দর্যও।সেলিব্রিটির সঙ্গে সঙ্গম:স্বপ্নে সলমন খান বা হৃতিক রোশন এসে চরম রতিসুখ দিয়েছেন কখনও। অথবা ক্যাটরিনা কাইফকে কখনও খুব কাছ থেকে অনুভব করেছেন স্বপ্নে। এর দু’টি সংকেত হতে পারে। এক, আপনি সত্যিই এই সেলেবদের সঙ্গে মিলনে লিপ্ত হতে চান। দুই, এঁদের নাম-যশ-খ্যাতি আপনাকে তীব্রভাবে আকর্ষণ করে।
Share:

কার বেশি যৌনাকাঙ্খা, নারীর না পুরুষের?

নারী-পুরুষ সম্পর্কের ক্ষেত্রে কার বেশি যৌনাকাঙ্খা- এটা তকর্যোগ্য প্রশ্ন। তবে অনেকের মতে, যৌনতায় বেশি আগ্রহী পুরুষরাই। কিন্তু এই ধারণা বর্তমানে পুরনো ও বাতিল। ২০১৭ সালে দাঁড়িয়ে এক কথায় এই প্রশ্নর উত্তর পেতে চাইলে বোকা বনতে হবে।সম্প্রতি যুক্তরাজ্যে ভাউচার কোড প্রো নামে একটি অনলাইনের করা এক সমীক্ষায় এ প্রশ্নের যে উত্তর উঠে এসেছে, তা জানলে তাজ্জব বনে যাবেন। প্রাপ্তবয়স্ক দুই হাজার ৩৮৩ জন নারী ও পুরুষের ওপর চালানো সমীক্ষায় জানতে চাওয়া হয়, নারী ও পুরুষের সম্পর্কে ক্ষেত্রে কে বেশি যৌনতা চায়?সমীক্ষায় যে ফল উঠে এসেছে, তাতে দেখা যায়, বর্তমান সময়ে পুরুষের চেয়ে নারীর যৌন আকাঙ্খা বেশি। প্রায় ৫৯ শতাংশ নারী জানিয়েছেন, প্রেমের সম্পর্ক চলাকালে তারাই প্রেমিকের মনে যৌনতা উস্কে দেন। মুখ ফুটে না বললেও হাবভাবে তারা যৌন চাহিদা প্রকাশ করেন।অন্যদিকে, ৪১ শতাংশ পুরুষ প্রেম চলাকালে যৌন আগ্রহ প্রকাশ করেন বলে সমীক্ষায় জানা গেছে।সমীক্ষায় আরও বেশকিছু তথ্য উঠে এসেছে।যেমন, ২১ শতাংশ দম্পতি নিজেদের মধ্যে অতীতের যৌনজীবন নিয়ে ঝগড়া করেন। অনেকেতাদের সঙ্গীকে ‘অলস’ বলে আখ্যায়িত করেন। ৩২ শতাংশ নারীর অভিযোগ, স্রেফ আলসেমির জন্য তাদের স্বামী বা বয়ফ্রেন্ড শারীরিক সম্পর্কে যান না।সমীক্ষায় অংশ নেওয়া ৩৪ শতাংশ নারী জানান, তাদের যৌনসম্পর্কে নতুনত্বের অভাব রয়েছে। কিন্তু আলসেমির জন্য বা কেউ দেখে ফেলতে পারে এই ভয়ে তাদের সঙ্গীরা বেডরুমের বাইরে শারীরিক সম্পর্ক চান না।
Share:

ফরয গোসলের ইসলামিক সঠিক নিয়ম ও শর্তসমূহ !!

ইসলামি ভাষায় ফরজ গোসল করার সঠিক নিয়ম ও ফরয গোসলের শর্তসমূহ !!ফরজ গোসলের সঠিক নিয়ম না জানার কারণে অসংখ্য মুসলিম ভাই- বোনের সালাত সহ নানা আমল কবুল হয় না। যেটা ঈমানের ক্ষেত্রে চরম ভয়ানক ব্যাপার।যেসব কারণে গোসল ফরজ হয়ঃ১. স্বপ্নদোষ বা উত্তেজনাবশত বীর্যপাতহলে।২. নারী-পুরুষ মিলনে (সহবাসে বীর্যপাত হোক আর নাই হোক)।৩. মেয়েদের হায়েয-নিফাস শেষ হলে।৪. ইসলাম গ্রহন করলে(নব-মুসলিম হলে)।ফরজ গোসলের ফরজ সমূহ হলো-গোসলের ফরজ মোট তিনটি। এই তিনটির কোনো একটি বাদ পরলে ফরজ গোসল obligatory bath আদায় হবে না। তাই ফরজ গোসলের সময় এই তিনটি কাজ খুব সর্তকতার সাথে আদায় করা উচিত।১. গড়গড়া কুলি করা।২. নাকে পানি দেওয়া।৩. এরপর সারা দেহে পানি ঢালা ও ভালোভাবে গোসল করা।ফরজ গোসলের সঠিক নিয়মঃ১. গোসলের জন্য মনে মনে নিয়্যাত করতে হবে। বাড়তি মুখে কোন আরবি শব্দ উচ্চারণ করে নিয়্যাত করা বিদ’আত।২. প্রথমে দুই হাত কব্জি পর্যন্ত ৩ বার ধুতে হবে।৩. এরপর ডানহাতে পানি নিয়ে বামহাত দিয়েলজ্জাস্থান এবং তার আশপাশ ভালো করে ধুতে হবে। শরীরের অন্য কোন জায়গায় বীর্য বা নাপাকি লেগে থাকলে সেটাও ধুতে হবে।৪. এবার বামহাতকে ভালো করে ধুইয়ে পেলতেহবে।৫. এবার ওজুর নিয়মের মত করে ওজু করতে হবে তবে দুই পা ধুয়া যাবে না।৬. ওজু শেষে মাথায় তিনবার পানি ঢালতে হবে।৭. এবার সমস্ত শরীর ধোয়ার জন্য প্রথমে ৩ বার ডানে তারপরে ৩ বার বামে পানি ঢেলে ভালোভাবে ধুতে হবে, যেন শরীরের কোন অংশই বা কোন লোমও শুকনো না থাকে। নাভি, বগল ও অন্যান্য কুঁচকানো জায়গায় পানি দিয়ে ধুতে হবে।৮. সবার শেষে একটু অন্য জায়গায় সরে গিয়ে দুই পা ৩ বার ভালোভাবে ধুতে হবে।অবশ্যই মনে রাখতে হবেঃ১. পুরুষের দাড়ি ও মাথার চুল এবং মহিলাদের চুল ভালোভাবে ভিজতে হবে।২. এই নিয়মে গোসলের পর নতুন করে আর ওজুর দরকার নাই, যদি ওজু না ভাঙ্গে।(আল্লাহ আমাদের সঠিকভাবে কুর’আন ও সহিহসুন্নাহ মেনে চলার তাওফিক দিক এবং পূর্বের না জেনে করা ভুল ক্ষমা করুক। আমিন।)
Share:

Valobashi Obiroto KaziShuvo N Sharalipi Bl Robi Airtel Tele Gp New Wecome Tune Code

Song : Valobashi Obiroto Singer : Kazi Shuvo & Sharalipi Lyric : Rokib Hossen Tune : Kazi Shuvo Music : Rafi Album : Valobashi Obiroto এই গানটি আপনার মোবাইলে সেট করতে পারেন নিচে কোড দেয়া হল: WELCOME TUNE CODE: GP : 6252725 ROBI : 6252725 AIRTEL : 6252725 BANGLA LINK : 5743591 TeliTok : 6252725 গ্রামীনফোনের গ্রাহকরা এই গানটি ওয়েলকামটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে WT লিখে স্পেস দিয়ে 6252725 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে রবির গ্রাহকরা এই গানটি গুনগুন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে GET লিখে স্পেস দিয়ে5 6252725 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে বাংলালিংক গ্রাহকরা এই গানটি আমারটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে down লিখে স্পেস না দিয়ে 5743591 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে এয়ারটেল গ্রাহকরা এই গানটি কলারটিউন সেটকরতে মেসেজ অপশনে গিয়ে CT লিখে স্পেস দিয়ে 6252725 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে
Share:

সকালে খালি পেটে পানি খাওয়ার উপকারিতা

প্রতিদিন পরিমিত পরিমাণে পানি পান করা খুবই জরুরি। তবে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর খালি পেটে এক গ্লাস পানি পান করা স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারীএ অভ্যাসটি যদি রপ্ত করা যায় তবে অনেক ধরনের রোগ থেকে শরীরকে মুক্ত রাখা যায়। আর এজন্যই দিনের শুরুর এই এক গ্লাস পানিকে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা ‘স্বাস্থ্যকর’, ‘বিশুদ্ধ’, ‘সুন্দর’ ইত্যাদি বিশেষণে বিশেষায়িত করে থাকেন। আসুন জেনে নেই সকালে খালিপেঠে পানি খাওয়ার বিভিন্ন উপকারিতা সম্পর্কে।১. রাতে ঘুমানোর ফলে দীর্ঘ সময় ধরে হজম প্রক্রিয়ার তেমন কোনো কাজ থাকে না। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠে হজম প্রক্রিয়ায় সহায়তা করার জন্য অন্তত এক গ্লাস পানি খেয়ে নেয়া উচিত।২. প্রতিদিন সকালে অন্তত ১৬ আউন্স হালকা গরম পানি খেলে শরীরের মেটাবলিসম ২৪% বেড়ে যায় এবং শরীরের ওজন কমে।৩. সকালে প্রতিদিন খালি পেটে পানি খেলে রক্তের দূষিত পদার্থ বের হয়ে যায় এবং ত্বক সুন্দর ও উজ্জ্বল হয়।৪. প্রতিদিন সকালে নাস্তার আগে এক গ্লাস পানি খেলে নতুন মাংসপেশী ও কোষগঠনের প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হয়।৫. প্রতিদিন সকালে মাত্র এক গ্লাস পানি খেলে বমি ভাব, গলার সমস্যা, মাসিকের সমস্যা, ডায়রিয়া, কিডনির সমস্যা, আর্থাইটিস, মাথা ব্যাথা ইত্যাদি অসুখ কমাতে সহায়তা করে৬. প্রতিদিন খালি পেটে এক গ্লাস করে পানি খেলে মলাশয় পরিষ্কার হয়ে যায় এবং শরীর নতুন করে খাবার থেকে পুষ্টিগ্রহণ করতে পারে সহজেই।৭. সকালে পানির বদলে জুস বা অন্য পানীয় না খাওয়াই শরীরের জন্য সবচেয়ে ভালো।
Share:

Welcome Tune Code Tomakei Vebe(তোমাকেই ভেবে) by nirjo habib

Song : Tomakei Vebe (OST of Telefilm Tomakei Vebe).Eid Drama : Tomakei VebeCast : Tawsif Mahbub,Nadia Afrin MimDirector : Rubel Hasan.Re-editing : Aabid Hasan.Singer : nirjo habibLyrics : sirajum Munir** গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে 7223209 লিখে পাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে 7223209 লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে 7223209 লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।
Share:

Welcome Tune Code Din Gelo by Shila Moni

গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODEলিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে।
Share:

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপে ত্রুটি ধরিয়ে দিলে পুরস্কার দেবে গুগল

প্লে স্টোরে থাকা বিভিন্ন অ্যাপের নিরাপত্তা ত্রুটি ধরিয়ে দিতে বাগ বাউন্টির ঘোষণা দিয়েছে গুগল। একটি ত্রুটি ধরিয়ে দিতে পারলেই মিলবে অন্তত এক হাজার ডলার পুরস্কার।মূলত প্লে স্টোর থেকে ম্যালওয়্যার ও অন্যান্য ক্ষতিকর প্রোগ্রাম রয়েছে এমন অ্যাপ দূর করতেই গুগল এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। ব্যবহারকারীদের জন্য উন্মুক্ত করার আগে অ্যাপের বিভিন্ন ত্রুটি এবং কোনো ক্ষতিকর প্রোগ্রাম রয়েছে কি না তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে যাচাই করে দেখে গুগল। এরপরও ম্যালওয়্যার ছড়ানো থেকে পিছিয়ে নেই প্লে স্টোর।গুগল ইতোমধ্যেই বাগ বাউন্টি প্রোগ্রাম ম্যানেজমেন্ট ওয়েবসাইট হ্যাকারওয়ানের সাথে কাজ শুরু করেছে। এর মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত অ্যাপ ও বিভিন্ন নিরাপত্তা ত্রুটির একটি তালিকা তৈরির ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে গুগল।২০১৫ সালে অ্যান্ড্রয়েডের জন্য বাগ বাউন্টি প্রোগ্রাম চালু করে গুগল। এর মাধ্যমে গত দুই বছরে অ্যান্ড্রয়েড এক্সপার্টদের প্রায় ১৫ লাখ ডলার প্রদান করেছে গুগল।
Share:

৮ টাকায় ১ জিবি ডাটা – নারীদের জন্য বিশেষ ইন্টারনেট প্যাকেজ

নারীদের জন্য বিশেষ ইন্টারনেট প্যাকেজ উদ্বোধন করলো রাষ্ট্রীয় মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটক। আজ রোববার টেলিটকের ‘অপরাজিতা প্যাকেজ’ এর অানুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।এ সময় মন্ত্রী ঘোষণা দেন, সারা দেশে বিনামূল্যে ২০ লাখ সিম বিতরণ করবে টেলিটক। এখন কম মূল্যে কল করা ও ইন্টারনেট ব্যাবহার করতে পারবেন নারীরা। ৮ টাকায় সপ্তাহে ১ জিবি ১৪ টাকায় ২ জিবি ব্যাবহার করা যাবে। আজ থেকে বিনামূল্যের সিম পাওয়া যাবে টেলিটকের রিটেইলার সেন্টার থেকে।মন্ত্রী মনে করেন, নারীদের জন্য এমন বিশেষ ইন্টারনেট প্যাকেজ ‘নারীর ক্ষমতায়নে’ ভূমিকার রাখবে।তারানা হালিম আরও বলেন, একনেকে অনুমোদন হওয়া এবং প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনের পরেও টেলিটকের নেটওয়ার্ক উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থ ছাড় করছে না মন্ত্রণালয়।টেলিটকের নেটওয়ার্ক উন্নয়নে প্রস্তাবিত ৬১০ কোটি টাকার প্রকল্প ছাড়ের জন্য অর্থ মন্ত্রনালয়ের প্রতি আবারও আহ্বান জানান মন্ত্রী।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তারানা হালিম বলেন, সাবমেরিন ক্যাবলের সংস্কারের কারণে আগামী তিন দিন ইন্টারনেট সংযোগে গতি কম পাওয়া যাবে।
Share:

ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে যুক্ত হচ্ছে পেপাল সুবিধা

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক তাদের ম্যাসেজিং প্ল্যাটফর্মম্যাসেঞ্জারে পেপাল সুবিধা যুক্ত করেছে। এর ফলে পেপাল অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে সরাসরি অ্যাপটিতে অর্থ পাঠাতে এবং অর্থের অনুরোধ করতে পারবেন ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার ব্যবহারকারীরা।ফেসবুক বেশ কিছুদিন ধরেই তাদের ম্যাসেজিং প্ল্যাটফর্ম ম্যাসেঞ্জারে লেনদেন ব্যবস্থা আনতে কাজ করে যাচ্ছে। ফেসবুক নতুন সুবিধার সাথে অতিরিক্ত হিসেবে ম্যাসেঞ্জারে কাস্টমার সার্ভিস চ্যাট বট যুক্ত করেছে। যার ফলে পেপাল গ্রাহকরা লেনদেনের পাশাপাশি এখন থেকে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন, অ্যাকাউন্ট ইনকয়ারি এবং অ্যাপে পেমেন্ট সম্পর্কিত সহায়তা চাইতে পারবে।ফেসবুক মেসেঞ্জার এবং পেপাল গতবছর গ্রাহককে কেনাকাটার জন্য তাদের পেপাল অ্যাকাউন্ট ম্যাসেঞ্জারে লিংককরার মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে চুক্তিবদ্ধ হয় । আর নতুন ঘোষণায় পিয়ারটু পিয়ার পেমেন্ট সমর্থন করবে। বর্তমানে ‘পিয়ার-টু-পিয়ার’ লেনদেন ব্যবস্থায় শীর্ষে রয়েছে পেপাল।আর চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে পেপ্যালে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪০০ কোটি মার্কিন ডলার।উল্লেখ্য, এই পিয়ার টু পিয়ার পেমেন্ট এই মুহূর্তে শুধুমাত্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে ২০ লাখ ৫ হাজারেরও বেশি পেপাল অ্যাকাউন্ট ইতোমধ্যে ফেসবুকের সাথে যুক্ত হয়েছে।পিয়ার টু পিয়ার পেমেন্ট অপশন অ্যাপলের নতুন পে ক্যাশ, স্কয়ার ক্যাশ, স্ন্যাপচ্যাটের পেমেন্ট এবং পেপ্যালের নিজস্ব ভেনমো অ্যাপের সাথে প্রতিদ্বন্ধিতা করবে।u
Share:

হুয়াওয়ে ফোনের দাম কমলো

একটি মডেলের ফোনের দাম কমালো হুয়াওয়ে। এটি হনর সিরিজের ফোন। মডেল হনর এইট প্রো। ফোনটি এ বছরের জুলাইয়ে বাজারে এসেছিল। তখন এটির দাম ছিল ভারতের বাজারে ২৯ হাজার ৯৯৯ রুপি। এখনএটি বিক্রি হচ্ছে ২৬ হাজার ৯৯৯ রুপিতে।মিডনাইট ব্ল্যাক হোক বা নেভি ব্লু, দুটি কালার ভেরিয়েন্টের ক্ষেত্রেই এই দাম। অনার ৮-এরই আপগ্রেডেড ভার্সানঅনার ৮ প্রো। এই মডেলের ফিচার্স আরেকটু বেশি। স্পেশিফিকেশনের কথা বলতে গেলে, এই ফোনের ৫.৭ ইঞ্চির QHD (1440×2560 pixels) LTPS LCD ডিসপ্লে।ইন হাউস Kirin 960 octa-core প্রসেসর রয়েছে এতে। ৬ জিবি র‌্যাম। স্টোরেজ ১২৮ জিবি, যদিও তা বাড়ানো যাবে।কখন ইউজাররা ইনঅ্যাক্টিভ আর কখন করেন মেসেজ রিয়ার ডুয়াল ক্যামেরা রয়েছে ফোনটির। একটি সেন্সর ১২মেগাপিক্সেলের, আরেকটি আরজিবি। মনোক্রোমে হবে ইমেজ। f/2.2 অ্যাপারচারের লেজার অটো ফোকাস ক্যামেরা। এলইডি ফ্ল্যাস এবং ৪কে ভিডিও রেকর্ডিং।ফন্টে f/2.0 অ্যাপারচারের ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। ৪০০০ এমএএইচের ব্যাটারি এই ফোনে। রয়েছে Android 7.0 Nougat সঙ্গে EMUI 5.1 custom skin।কানেক্টিভিটির অপশনও মন্দ নয়। ডুয়াল সিম, rear fingerprint sensor, NFC, USB Type-C, 4G LTE support, infrared sensor এবং Bluetooth 4.2 রয়েছে এতে।
Share:

হোয়াটসঅ্যাপে করা যাবে গ্রুপ ভয়েস কলিং

-প্রতিনিয়ত নিত্য নতুন ফিচার এনে ব্যবহারকারীকে চমক দেন হোয়াটস অ্যাপ। তাঁরা এবার তাদের অ্যান্ড্রয়েড বেটা ভার্সনের জন্য নতুন ফিচার নিয়ে এসেছে। এবার হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহারকারীরা গ্রুপ ভয়েস কলিং ফিচারটি ব্যবহার করতে পারবেন।জানা যায়, বেশ কয়েকদিন ধরেই গোপনে এই ফিচারটি পরীক্ষা করছিল হোয়াটস অ্যাপ। অবশেষে ফিচারটিকে ঘোষণা করেই দেওয়া হল। ফেসবুকের মেসেঞ্জার অ্যাপে ইতিমধ্যেই এই ফিচারটি রয়েছে।এর আগে ব্যবহারকারীদের জন্য অভিনব একটি ফিচার নিয়ে এসেছিল হোয়াটস অ্যাপ। যার মাধ্যমে আপনি ফোন নম্বর বদলালেই আপনার কনট্যাক্টসের কাছে নোটিফিকেশন চলে যাবে। আলাদা করে আর পরিচিত কিংবা প্রিয়জনদের নতুন হোয়াটস অ্যাপ নম্বর জানানোর প্রয়োজন হবে না।
Share:

বাংলালিংক বন্ধ সিম অফার – ১৯ টাকা রিচার্জে ১ জিবি ইন্টারনেট

বাংলালিংক বন্ধ সংযোগে দারুণ অফার! আপনার বন্ধ বাংলালিংক সংযোগ চালু করলেই পাবেন ৩০ দিনের জন্য ফেসবুক/হোয়াটসঅ্যাপ/ইমো ফ্রি! এছাড়াও ১৯ টাকা রিচার্জে পাচ্ছেন ১ জিবি ইন্টারনেট! অফারটি সেই সব প্রিপেইড এবং কল অ্যান্ড কন্ট্রোল গ্রাহকদের জন্য প্রযোজ্য যারা ২৮ মে, ২০১৭ পর্যন্ত বা তার আগে বাংলালিংক সংযোগ অথবা ২৮ মে, ২০১৭ থেকে ৬ জুলাই, ২০১৭ এর মধ্যে বাংলালিংক ইন্টারনেট ব্যবহার করেননি।অফারের বিস্তারিতঃগ্রাহকের জন্য এই অফারটি প্রযোজ্য কিনা তা জানতে গ্রাহককে তার নাম্বারটি লিখে পাঠিয়ে দিতে হবে ৪৩৪৩ নাম্বারে (ফ্রি)অফারটি পেতে গ্রাহককে ৳১০ বা তার বেশিরিচার্জ করতে হবে (রিচার্জ ভিত্তিক প্যাক ছাড়া)প্রতিদিন 25MB পর্যন্ত ফেসবুক/হোয়াটসঅ্যাপ/ইমো ফ্রি। ফ্রি ইন্টারনেট শেষ হবার পর গ্রাহকের ইন্টারনেট প্যাক বা pay-as-you-go হারেচার্জ প্রযোজ্য হবে। ফ্রি সোশ্যাল মিডিয়া ৩০ দিনের জন্য প্রযোজ্য৳১৯ রিচার্জে প্রতিবার গ্রাহক 1GB ইন্টারনেট প্যাক কিনতে পারবেন এবং ১ পয়সা/১ সেকেন্ড (যেকোনো লোকাল নাম্বারে) কলরেট অ্যাক্টিভেট হয়ে যাবে। কলরেট ও ইন্টারনেট প্যাকের মেয়াদ তিন দিন। মেয়াদ থাকাকালীন পুনরায় ৳১৯ রিচার্জে 1GB ইন্টারনেট প্যাক কিনলে আগের প্যাকের অব্যবহৃত ভলিউম যোগ হবে এবং নতুন প্যাকের মেয়াদপ্রযোজ্য হবে৳১৯ রিচার্জে 1GB প্যাক সর্বোচ্চ ১০ বার কেনা যাবে, প্রথম রিচার্জের ৬০ দিনের মধ্যেফেসবুক/হোয়াটসঅ্যাপ/ইমো ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *124*232#1GB ইন্টারনেট ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *124*50#অফারটি আনসাবস্ক্রাইব করতে ডায়াল*166*232#অফারটি সীমিত সময়ের জন্য প্রযোজ্যVAT, SD ও SC প্রযোজ্য
Share:

We Are Tigers রবির নতুন প্যাকেজ

ডায়াল করুন *১২৩*২০২০# আর হয়ে যান We Are Tigers মেম্বারপ্যাকের বিস্তারিত –যেসব সুবিধা থাকছে:কমিউনিটি রেট – ০.৫ পয়সা/সেকেন্ড*.We Are Tigers মেম্বাররা একে অপরের সাথে ০.৫ পয়সা/সেকেন্ড রেটে কথা বলতেপারবেনএক্সক্লুসিভ অফারসমূহ:গ্রাহকেরা *১২৩*৫০৫০# ডায়াল করে We are Tigers-এর সকল আকর্ষণীয় অফার এবং সুবিধাসমূহ উপভোগ করতে পারবেন –*১২৩*৫০৫০#। মেন্যু বিস্তারিত:ইউএসএসডি কোডঅফারসমূহ*১২৩*৫০৫০#১) ক্রিকেট বান্ডেলসমূহ২) রান স্কোর করে জিতে নিন হেলিকপ্টার রাইড৪) ১০০% ম্যাচ ডে বোনাস অফারক্রিকেট বান্ডেলসমূহনামরবি-রবি ও এয়ারটেল মিনিটডাটালাইভকমেন্টারিটাইগার টুইটক্রিকেট অ্যালার্টমেয়াদমূল্য (ভ্যাট ও ট্যাক্স ছাড়া)১ দিনের বান্ডেল৫০২০ এমবিপুরো ম্যাচসর্বনিম্ন ১টি এসএমএসসর্বনিম্ন ২টি এসএমএস১ দিন২০ টাকা৫ দিনের বান্ডেল২০০৫০০ এমবি (সকাল ৮টা – রাত ৮টা)পুরো ম্যাচসর্বনিম্ন ১টিএসএমএস/দিনসর্বনিম্ন ২টি এসএমএস/ দিন৫ দিন৭৫ টাকা*.শুধুমাত্র We Are Tigers মেম্বাররা এই বান্ডেলসমূহ কিনতে পারবেন*.গ্রাহককে *১২৩*৫০৫০*১# ডায়াল করে ক্রিকেট বান্ডেলসমূহ কিনতে হবে*.সকল ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট ম্যাচের সময় ক্রিকেট অ্যালার্ট চালু থাকবে*.শুধুমাত্র নির্ধারিত ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট ম্যাচগুলোতে লাইভ কমেন্টারি চালু থাকবে*.লাইভ কমেন্টারি শুনতে গ্রাহককে ২২০২০ ডায়াল করতে হবে*.পরবর্তী নোটিশ না দেয়া পর্যন্ত অফারটি চালু থাকবে*.গ্রাহক *২২২*২# ডায়াল করে বান্ডেল মিনিট এবং *১২৩*৩*৫# ডায়াল করে বান্ডেল ডাটা চেক করতে পারবেননতুন প্রশ্ন পেতে অংশগ্রহণকারীকে QUIZ লিখে ২২০২০ নম্বরে পাঠাতে হবেগ্রাহকেরা ক্রিকেট কুইজে সঠিক উত্তর দিয়ে রান স্কোর করে ক্যাম্পেইন চলাকালীন মোট রানের ভিত্তিতে জিতে নিতে পারবেন পুরস্কার*.শুধুমাত্র We Are Tigers মেম্বাররা এই খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন*.গ্রাহক *১২৩*৫০৫০*২# ডায়াল করে খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন*.এতে কোনো সাবস্ক্রিপশন বা এসএমএস চার্জ থাকবে না। গ্রাহক ফ্রি-তে এই খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন*.অংশগ্রহণকারীকে ক্রিকেট বিষয়ক প্রশ্ন করা হবে*.একটি প্রশ্নের কয়েকটি উত্তর দেয়া থাকবে*.অংশগ্রহণকারীকে সঠিক উত্তর ২২০২০ নম্বরে পাঠাতে হবে*.অংশগ্রহণকারী উত্তর পাঠানোর পর আরেকটি নতুন প্রশ্ন পাবেন*.অংশগ্রহণকারী যত খুশি তত প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন*.অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক সঠিক উত্তরের জন্য ২ রান পাবেন*.ভুল উত্তরের জন্য রান কাটা হবে না*.২০,০০০ রানে আগে পৌঁছানোর ভিত্তিতে বিজয়ী নির্ধারণ করা হবে*.নতুন প্রশ্ন পেতে অংশগ্রহণকারীকে QUIZ লিখে ২২০২০ নম্বরে পাঠাতে হবে*.মোট রান কত হলো জানতে অংশগ্রহণকারীদের RUN টাইপ করে ২২০২০ নম্বরে পাঠাতে হবে*.খেলাটি ২০ অক্টোবর শুরু হবে এবং ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে (৩০ দিন)*.রবি যেকোনো সময়ে অফারটি পরিবর্তনের অধিকার সংরক্ষণ করে*.বিজয়ী নির্ধারণের ক্ষেত্রে রবির সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে*.রবিতে কর্মরত কারও সাথে সম্পৃক্ত কোন গ্রাহক এই খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন নাপুরস্কার*.সেরা ৩ অংশগ্রহণকারী পাবেন তাসকিন আহমেদের সাথে হেলিকপ্টার রাইডের সুযোগ।*.পরবর্তী ৭ অংশগ্রহণকারী পাবেন তাসকিন আহমেদের সাথে ডিনার করার সুযোগ।*.পরবর্তী ১০ অংশগ্রহণকারী পাবেন তাসকিন আহমেদের সাইন করা একটি ক্রিকেট ব্যাট।*.পরবর্তী ১০ অংশগ্রহণকারী পাবেন তাসকিন আহমেদের সাইন করা একটি জার্সি।১০০% ম্যাচ ডে বোনাসম্যাচ ডে-তে আগের দিনের চেয়ে বেশি কথা বলে বর্ধিত ভয়েস কলের উপর জিতে নিন ১০০% বোনাস*.এই অফারটি শুধুমাত্র We Are Tigers মেম্বারদের জন্য*.গ্রাহক ম্যাচ ডে-তে বর্ধিত ভয়েস কলের উপর ১০০% মিনিট বোনাস পাবেন*.বোনাস পেতে গ্রাহককে ম্যাচ ডে এর আগের দিন কমপক্ষে ৫ টাকা সমমূল্যের ভয়েস কল এবং ম্যাচ ডে-তে আগের দিনের চেয়ে কমপক্ষে ৩ টাকা বেশি সমমূল্যেরভয়েস কল করতে হবে।*.গ্রাহক একটি ম্যাচ ডে-তে ১০০% পর্যন্ত বোনাস পেতে পারেন।*.ইউসেজের হিসাব দৈনিক ভিত্তিতে করা হবে*.গ্রাহক *৪৪৪*৮১# ডায়াল করে আগের দিনের এবং ম্যাচ ডে এর ইউসেজ চেক করতে পারবেন*.গ্রাহক *২২২*৭১# ডায়াল করে বোনাস চেক করতে পারবেন*.গ্রাহক ম্যাচ ডে’র পরের দিন বোনাস পাবেন (রাত ১২টার সময়)*.শুধুমাত্র লোকাল ভয়েস ইউসেজ গণ্য করা হবে – ইন্টারন্যাশনাল কল গণ্য করা হবে না*.বান্ডেল কেনা এই ইউসেজ ক্যাম্পেইনের আওতায় গণ্য করা হবে না।*.বোনাসের মেয়াদ হবে ১ দিন*.বোনাস মিনিট দুপুর ১২টা – বিকাল ৪টা পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে (রবি টু রবি ও এয়ারটেল)*.যেসব গ্রাহক ০.৪০ টাকা/মিনিট (ভ্যাট ছাড়া) এর কম রবি টু রবি ও এয়ারটেল কল রেট এবং ০.৮৭ টাকা /মিনিট (ভ্যাট ছাড়া) রবি টু অন্যান্য অপারেটর কল রেট উপভোগ করছেন, তাঁরা এই অফারটি উপভোগ করতে পারবেন না*.যেসব গ্রাহক স্পেশাল রেট অফার (রেট-কাটার) উপভোগ করছেন, তাঁরা এই অফারটি উপভোগ করতে পারবেন না*.এই অফারটি চালু করলে গ্রাহক কোনো স্পেশাল রেট অফার (রেট-কাটার) উপভোগ করতে পারবেন না*.যেসব গ্রাহক উপরোক্ত শর্তের আওতায় পড়েন তাঁরা *১২৩*৫০৫০*৪# ডায়াল করে অফারটি চালু করতে পারবেন*.অফারটি ২০ অক্টোবর থেকে ২৯ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে*.হিসাব, বোনাস প্রদান ইত্যাদির ব্যাপারে রবির সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে*.রবি যেকোনো সময়ে অফারটি পরিবর্তনের অধিকার সংরক্ষণ করেসাধারণ শর্তাবলী:*.রবি প্রি-পেইড গ্রাহকেরা *১২৩*২০২০#ডায়াল করে We Are Tigers-এ মাইগ্রেট করতে পারবেন*.গ্রাহকেরা *১২৩*৫০৫০# ডায়াল করে সকলআকর্ষণীয় অফার এবং সুবিধাসমূহ উপভোগ করতে পারবেন। মেন্যু বিস্তারিত:ইউএসএসডি কোডঅফারসমূহ*১২৩*৫০৫০#১) ক্রিকেট বান্ডেলসমূহ২) রান স্কোর করে জিতে নিন হেলিকপ্টার রাইড৩) স্পেশাল অফার৪) ১০০% ম্যাচ ডে বোনাস অফার*.এই প্যাকের বেজ রেট ২০.৭৫ পয়সা/১০ সেকেন্ড*.We Are Tigers মেম্বাররা সকল বিদ্যমান স্পেশাল রেট অফারসমূহ (৩১ টাকা, ৩৯ টাকা, ৭৯ টাকা, ইত্যাদি) উপভোগ করতে পারবেন*.পরবর্তী নোটিশ না দেয়া পর্যন্ত অফারটি চালু থাকবে
Share:

চল্লিশ বছর হলে ও যৌবন ধরে রাখুন দরকারি টিপ্স।'

বয়স যতো বাড়তে থাকে ততোই মনেহতে থাকে নিজের ফেলে আসাদিনগুলোর কথা। বিশেষ করে বয়স যখনচল্লিশের কোঠা পার হয় তখন অনেকেইনিজেকে আয়নায় দেখে ভেবে থাকেনবছর দশেক আগের কথা। কল্পনায় ফেলেআসা দিনগুলোকে দেখতে থাকেন। কিন্তুকেমন হয় যদি চল্লিশের কোঠা পার হয়েওনিজের মধ্যে সেই ত্রিশের যৌবন ভরালুকটা ধরে রাখতে পারেন? অবশ্যইভালো। ভাবছেন কীভাবে করবেন এইঅসম্ভবকে সম্ভব? তাহলে মেনে চলুনএই ৫ টি ধাপ।ভুলে যান লো ফ্যাট ডায়েটনিজের শরীরকে ফিট রাখতে অনেকেইঅল্প বয়স থেকেই সব কিছুতে লো ফ্যাটখুঁজেন। একেবারেই ফ্যাটের ধারে কাছেযেতে চান না। কিন্তু আপনি যদি চল্লিশেরপরও নিজের চেহারায় ত্রিশের লুক ধরেরাখতে চান তবে এই লো ফ্যাট ডায়েটেরকথা একেবারেই ভুলে যেতে হবে। কিছুটাফ্যাট আমাদের দেহের ক্ষতি নয় বরংউপকারই করে। ফ্যাট আমাদের দেহেরপাওয়ার হরমোনগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করেএবং আমাদের ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে।একই ধরনের শারীরিক পরিশ্রম এড়িয়ে চলুননিয়মিত ব্যায়াম দেহকে ফিট রাখতে সহায়তাকরে। কিন্তু যদি প্রতিদিন বছরের পর বছরগৎবাঁধা নিয়মে শারীরিক ব্যায়াম করে যেতেথাকেন তাহলে তা কিন্তু আপনার দেহ ওত্বকের ওপর প্রভাব ফেলবে। মাঝেমাঝে দেহকে কিছুদিনের বিশ্রাম দেয়া এবংবয়সের সঙ্গে ব্যায়ামের নিয়মাবলীপরিবর্তনের প্রয়োজন রয়েছে। কারণআপনি যেমনটি ৩০ বছর বয়সে করেছেনতা আপনি ৪০ পেরিয়ে করতে পারবেন না।এতে দেহে চাপ পড়বে।‘বয়স হয়ে গিয়েছে’ কথাটি বলবেন না৪০ পার হতে না হতেই যদি নিজেকে একজনবয়স্ক মানুষ ভাবতে থাকেন তাহলে দেহএবং ত্বকে এর প্রভাব অবশ্যই পড়বে। বয়সহয়েছে বলে ত্বকের যত্ন করবেন না,আগের মতো পরিশ্রম ও ব্যায়াম করবেননা। এসব করলে কিন্তু চলবে না। সবকিছুরদোষ বয়সের কাঁধে চাপিয়ে দেবেন না।মনের ভেতর ইচ্ছেশক্তি জাগিয়ে রাখুন।দেহ ও ত্বকে তারুণ্য ধরে রাখতে কাজকরুন।পানিশূন্যতা প্রতিরোধ করুনপানি দেহ, ত্বক ও দেহের অভ্যন্তরীণঅঙ্গপ্রত্যঙ্গের জন্য বিশেষভাবেজরুরী। নিষ্প্রাণ ত্বক, কিডনির ক্ষতি,দুর্বলতাএবং সেই সঙ্গে মনের বার্ধক্যেরজন্যে দায়ী পানিশূন্যতা। নিয়মিত দৈনিক ৬-৮গ্লাস পানি পান দেহকে রাখে টক্সিনমুক্ত,সুস্থ ও সবল এবং ধরে রাখে তারুণ্য।অতিরিক্ত ব্যায়াম থেকে বিরত থাকুনকথাটি শুনে অবাক লাগলেও সত্যিকার অর্থেইঅতিরিক্ত শারীরিক ব্যায়ামের ক্ষতিকরপ্রভাবরয়েছে। ব্যায়াম সুস্থ রাখে ঠিকই কিন্তুঅতিরিক্ত ব্যায়ামের কারণে দেহেরমাংপেশি ও হাড়ের দুর্বলতা বাড়ে। ত্বকেরওপরেও পড়ে মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব।অতিরিক্ত কোনো কিছুই ভালো নয়।এজন্যে ব্যায়াম করুন, তবে সঠিক নিয়মে।
Share:

মেয়েদের যৌনস্পর্শকাতর অংগগুলির বর্ণনাকারী দেখেনিন।

মেয়েদের দেহে শুধুমাত্র যোনি, স্তনআর নিতম্বই তাদের একমাত্র যৌনস্পর্শকাতরঅঙ্গ নয়। ওদের বলতে গেলে প্রায়পুরো দেহটিই স্পর্শকাতর। তার মাঝেও কিছুকিছু স্থান রয়েছে যেগুলোতে আদরপেলে তারা চূড়ান্ত উত্তেজনার দিকেতড়িৎগতিতে অগ্রসর হয়।মোটকথা আমাদের সঙ্গী-সঙ্গিনীকেপরিপূর্ন যৌনসুখ দিতে হলে তাদেরযৌনস্পর্শকাতর অঙ্গগুলো সম্পর্কেআমাদের স্পষ্ট ধারনা থাকা দরকার। অনেকেবলতে পারেন কি দরকার? নিজে মজাপেলেই হল। তাদের জন্য বলছি আমার এপ্রয়াস ভালোবাসারঅনুভুতিবিহীন যৌন লালসাময় সেক্সের জন্যনয়। যে তার সঙ্গী বা সঙ্গিনীকেভালবাসে সে অবশ্যই চাইবে তাকে আনন্দদিতে এবং এতে সে নিজেও আনন্দ লাভকরে।মূলত ছেলে ও মেয়ের যৌনকাতরঅঙ্গগুলোর মধ্যে অনেকগুলোইCommon রয়েছে এবং তাদের ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া ছেলে বা মেয়ে ভেদে প্রায়একই হলেও কয়েকটি ক্ষেত্রে কিছুটাভিন্ন। এসকল কিছু উল্লেখপূর্বকএখানে আমি তাদের এ অঙ্গগুলোর বিবরনছাড়াও কি কি উপায়ে সেগুলোকেউত্তেজিত করে তোলা যেতে পারে তারউপরেও আলোকপাত করেছি। আশা করিসবার ভালো লাগবে।মেয়েদের দেহের বেশ কয়েকটিযৌনস্পর্শকাতর অংশ আছে যেগুলো সরাসরিতাদের যৌনত্তেজনার সূচনা ঘটায়। সাধারনঅবস্থা থেকে এ অংশগুলোর মাধ্যমেইএকটি ছেলে তারমাঝে যৌনাভুতি জাগিয়ে তুলতে পারে।আর কিছু অংশ আছে যেগুলো মেয়েটিরযৌনত্তেজনার সূচনা ঘটার পরই উত্তেজিতহওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে উঠে, অথচ সাধারনঅবস্থায় এগুলো উত্তেজিত করার চেষ্টাকরলে মেয়েটি এমনকি ব্যাথা বা অসস্তিওবোধ করতে পারে। মেয়েদেরসবচাইতে যৌনস্পর্শকাতর অংশটিও এই দ্বিতীয়শ্রেনীর অন্তর্ভুক্ত। So, read on fordetails.১. ঠোট ও জিহবাঃ ঠোট নারীদেহেরসবচাইতে যৌনত্তেজক অঙ্গগুলোরমধ্যে একটি। ঠোটের মাধ্যমেই সমগ্রনারীদেহ উত্তেজনার সূচনার সবচেয়েজোরালো সংকেতটি গ্রহন করে থাকে।এতে একটি ছেলের ঠোটের স্পর্শমেয়েটির সারা দেহে যেন বিদ্যুতেরগতিতে কামনার আগুন ছড়িয়ে দেয়। তবেআরেকটি ঠোটের স্পর্শই যে শুধুমাত্রমেয়েটিকে উত্তেজিত করে তুলবে তানয়। ছেলেরা অন্য ভাবেওমেয়েটির ঠোটের মাধ্যমে তারদেহেরমাঝে ভালোবাসা ছড়িয়ে দিতে পারে।আঙ্গুল দিয়ে মেয়েটির ঠোটে হাতবুলিয়ে দেয়া, ওখানে নিজের নাকঘষা এভাবেও ছেলেটি ওকে উত্তেজিতকরে তুলতে পারে। আর ঠোট দিয়েওএকবার মেয়েটির উপরের ঠোটআরেকবার ওর উপরের ঠোট চুষে, ফাকেফাকে ঠোট থেকে একটু সরে গিয়েথুতনিতে চুমু খেয়ে ওকে tease করাযেতে পারে। আর মেয়েরা তাদের জিহবাদিয়ে শুধুই খাদ্যের স্বাদ গ্রহন করে না,সঙ্গীর আদরের স্বাদও এর মাধ্যমেইঅনুভব করে। তাদের জিহবা একটি ছেলেরমুখের ভেতরের উষ্ঞতা খুজে নেয়। এরমাধ্যমে সে ছেলেটির জিহবা থেকে যেঅনুভুতি গ্রহন করে তা তার সারাদেহকে ওরকাছে সপে দেওয়ার জন্য উদগ্রিব করেতোলে। চুমু খাওয়ার সময় ছেলেটিমেয়ের মুখের ভিতরে তারজিহবা ঢুকিয়ে দিয়ে নাড়াচাড়া করে তারমুখের ভিতরেও কাঁপন বইয়ে দিতে পারে।আর মেয়েটির জিহবা চুষলে তো কথাইনেই। এভাবে মেয়েটির জিহবার স্বাদ নিয়েছেলেটি ওকে আদর করার জন্যমেয়েটিকে আরো উন্মুখ করে তুলতেপারে। তবে মেয়েদের ঠোট ও জিহবাযে শুধুই পরোক্ষ আদরে উদ্বেল হয় তানয়। মেয়েটি তার সঙ্গীর গালে, গলায়,বুকে, কান এদের স্পর্শ করলে ছেলেটিযেমন আনন্দ পায় তেমনি মেয়েটিওঅন্যরকম এক আনন্দ লাভ করে। অনেকপর্ন মুভিতে দেখা যায়যে সেখানে মেয়েগুলোছেলেদের লিঙ্গচুষতে খুব পছন্দ করে। বাস্তবে বিশেষকরে আমাদের দেশের বেশিরভাগমেয়েইছেলেদের লিঙ্গে মুখ দেয়াটাকে চরমঘৃন্যএকটা কাজ বলে মনে করে। অথচ,বিদেশে বাস্তবেও অনেক মেয়েইছেলেদের লিঙ্গ শুধু তাকে আনন্দদেওয়ার জন্যই চুষে না। সে নিজেও এতেআনন্দ পায়। এর মূল কারনই হল তার ঠোট ওজিহবার স্পর্শকাতরতা ছেলেটির দেহেরঅন্যান্য অংশে এ দুটি দিয়ে স্পর্শকরে সে যে আনন্দ লাভ করে, একইকারনে নিজের ছেলেটির লিঙ্গেরস্পর্শে তার আনন্দ হয়। এক্ষেত্রেএকমাত্রবাধা হয়ে দাঁড়ায় তার ঘেন্না; যেটা কাটিয়েউঠতে পারলেই সে এক নতুন ধরনেরযৌনসুখ আবিস্কার করে। তার জিহবার সাথেউত্তপ্ত লিঙ্গটির স্পর্শ, তার মুখের ভিতরেসেটির অবস্থান তাকে তার যোনির ভিতরেএর অবস্থানের চেয়ে কমআনন্দ দেয় না যদি সে একবার বুঝে যায় এরমজা। যোনির চাইতে তুলনামূলক কম যৌনকাতরহলেও মেয়েদের মুখেরসচেতনতা এর চেয়ে বেশি; ফলে সেওখানে ছেলেটির লিঙ্গের অবস্থানেরসময় সে এমনকি লিঙ্গের মাঝে উত্তেজিতরক্তের চলাচল, কাপুনি, উত্তাপ ইত্যাদিঅনুভবকরতে পারে। ভালোবাসার সময় এ অনুভুতিছেলেটিকে আদর করার জন্য ওকেআরো উদ্বেল করে তোলে। আর তারমুখের ভিতরে যখন ছেলেটি বীর্যপাতকরে তখন ছেলেটির উত্তেজনামেয়েটির মাঝেও ছড়িয়ে পড়ে, তার জিহবাও ঠোটের মাধ্যমে। যেসব মেয়েরালিঙ্গ চোষাকে ঘৃনা করে তারা কি করেএরমজাকে আবিস্কার করতে পারে এনিয়ে আমি কিছুদিন আগে একটা বিদেশিবইয়ের article পড়ে এ বিষয়ে আমার বেশকয়েকজন close মেয়ে বন্ধুর মতামতনিয়ে ওদের positiveresponse পেয়েছি। শিঘ্রই এ বিষয়েবিস্তারিত কিছু লিখব।২. গাল, কপাল, কানের লতিঃ মেয়েদেরএস্থানগুলো তাদের যৌন উত্তেজনারঅন্যতম সূচক হিসেবে কাজ করে। এসকলস্থানে ছেলেটির ঠোট ও জিহবার স্পর্শমেয়েটির দেহের মাঝে তারভালোবাসাকে ছড়িয়ে দেয়; মেয়েটিবুঝতে পারে, ছেলেটি তাকে চায়, তারসবকিছুই চায়। মেয়েটির এ স্থানগুলোছেলেটির দ্বারা অবহেলিত হলে সেপরিপূর্ন ভাবে যৌনসুখ অনুভবকরতে পারে না। আমার মতে, সেক্স,সে যার সাথেই করা হোক না কেন, তারমধ্যে সামান্য হলেও ভালোবাসা-আদরেরছোয়া না থাকলে এর আনন্দ অসম্পূর্নথেকে যায়।৩. গলাঃ মেয়েদের গলায় স্পর্শ ওদেরউত্তেজনায় পথে এগিয়ে নিতে যথেস্টভুমিকা রাখে। ছেলেটি মেয়েটির ঠোটেচুমু খেতে খেতে এর ফাকে ফাকেইগলায় ঠোট নামিয়ে এনে ঠোট দিয়েখেলা করলে ওর দারুন এক অনুভুতি হয়।প্রায় সব মেয়েরই গলার অংশটুকু বেশসংবেদনশীল। মেয়েটির ঠোটে চুমুখেয়ে তার গলায় নেমে আসলে তার যেসুড়িসুড়ির মত অনুভুতি হয় তাতে ও একই সাথেসুখ ও এক ধরনের অসস্তি লাভ করে। ওর মনচায় ছেলেটি ওর গলায় আরো সোহাগবুলিয়ে দিক আর ওর ঠোট চায় আবারসেখানে ছেলেটির ঠোটের স্বাদ।এভাবে tease করে ছেলেটি মেয়েটিকেউত্তেজনায় পাগলপ্রায় করে তুলতে পারে।৪. স্তনঃ প্রায় সব ছেলেরই মেয়েদেরদেহের সবচাইতে প্রিয় স্থান তার দুটি স্তন।মেয়েদের দেহের সবচাইতে যৌনকাতরঅঙ্গগুলির মাঝে যে এটি যে এক বিশেষভুমিকা পালন করে থাকে তা বলাই বাহুল্য।ছেলেদের ওদের প্রতি আকৃষ্ট করায় এরজুড়ি নেই। মেয়েভেদে স্তনের আকারযে ছোট বড় হয় সে হিসেবে তাদেরস্পর্শকাতরতারও কিছুটা রকমফের হয়।মেয়েদের স্তনের বেশিরভাগটাই চর্বিদিয়ে তৈরী। দেহের চর্বিবহুলঅংশগুলোতে এমনিতেই স্পর্শকাতরতা কমহয়। সে কারনেই যে মেয়েদের স্তনবেশি বড় থাকে স্বভাবতই তাদের স্তনেরসংবেদনশীলতা তুলনামূলক ছোট স্তনেরমেয়েদের থেকে সামান্য হলেও কমথাকে। এজন্যই বেশিরভাগ বড় স্তনেরমেয়েরা বেশজোরে জোরে ছেলেদের হাতেচাপখেতে পছন্দ করে; তাদের উত্তেজিতকরে তুলতে ছেলেদের একটু রুক্ষভাবে তৎপর হতে হয়। অবশ্যছেলেদেরও এক্ষেত্রে কোন আপত্তিআছে বলে মনে হয়না। তাদের স্তনেজোরে জোরে হাতদিয়ে টিপা ছাড়াও ওগুলো চুষার সময়হাল্কা হাল্কা কামড় দিলে তারা দ্রুতউত্তেজিত হয় তবে কামড়টা হতে হবেবোটার আশেপাশে কিন্ত সরাসরি বোটায়নয়। অন্যদিকে মাঝারি ও ছোট স্তনেরমেয়েদের স্তনের সংবেদনশীলতাতুলনামূলক বেশি হয়ে থাকে। তাই তাদেরস্তন টিপার সময় শুরুতে একটু ধীরেধীরেই করতে হবে। আর কামড় দেয়ারব্যাপারেও সাবধান থাকতে হবে কারন বেশিসংবেদনশীলতার জন্য তারা এক্ষেত্রেবেশ ব্যথাও পেতে পারে। তবে ছোটবড় যে স্তনই হোক না কেন,সেগুলোটিপা বা চুষার সময় ছেলেদের সবসময় লক্ষ্যরাখতে হবে যেন দুটি স্তনেই যেনতাদের হাতের ছোয়া থাকে। একটি চুষারসময় অন্যটি হাত দিয়ে টিপতে থাকতে হবে।আর মেয়েদের স্তনে আনন্দ দেয়ারআরো একটি পদ্ধতি হলো ছোট হলেপুরোটাইভআর বড় হলে যতটুকু সম্ভবস্তনটি মুখের ভিতরে ভরে নিতে হবে।তারপর জিহবা দিয়ে বোটার উপরে বুলাতেথাকতে হবে। এতে মেয়েরা দারুন মজাপায়। আর মেয়েদের স্তনের মধ্যেওসবচেয়ে স্পর্শকাতর হল তাদের বোটা।তবে বোটায় আদর করার ব্যাপারেছেলেদের একটু সাবধান হতে হবে।এ প্রসঙ্গে আগের পোস্টে বলেছি।বোটায়আদর করার জন্য প্রথমে মেয়েটিরস্তনের অন্যান্য অংশ টিপে তাকেউত্তেজিত করে নিতে হবে। তারপরএভাবে শুরু করা যেতে পারে; ওর স্তনেরবোটার উপর হাতের তালু রেখে পিঠাবানানোর জন্য বেলার মত করে হাতবুলাতে থাকতে হবে। এর আগে ওরস্তনে একটু চুষে নিলে আপনার মুখের লালাসেখানে লেগে থাকলে এভাবে তালুদিয়ে বোটাটি ম্যাসাজ করা অত্যন্তউপভোগ্য হয়ে উঠবে। তারপর মুখনামিয়ে দুটি ঠোট দিয়ে শুধু ওর বোটাটিচেপে ধরেও চুষা যায়। ও উত্তেজিত হয়েউঠলে মুখের আরো ভিতরে নিয়েবোটায়হাল্কা করে দাঁত বুলিয়ে দিলে ওরউত্তেজনা চরমে পৌছাবে।৫. দুই স্তনের মাঝের ফাকা স্থান(Cleavage): মেয়েদের দুই স্তনেরমাঝের এই যৌনত্তেজক ভাজটি তাদের প্রতিছেলেদের আকৃষ্ট করতে যথেস্ট ভুমিকাপালন করে, কিন্ত বেশিরভাগ ছেলেই এরদ্বারা প্রলুব্ধ হয়ে অবশেষে যখন ওদেরনগ্ন স্তনযুগলের দেখা পায় তখন যেএদের মাঝে ওদের যে একটা বেশস্পর্শকাতর স্থান রয়েছে তা বেমালুমভুলে যায়। মেয়েরা তাদের স্তনেছেলেদের
Share:

পুরুষদের চুলে সেক্স অ্যাপিল পেলে কোন মেয়েই না উত্তেজিত হয়!!'

রুষের সুঠাম শরীর আর ঘন কালো চুলদেখে মেয়েরাও উত্তেজিত হয় বলেমন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ থেকেনির্বাসিত লেখিকা তসলিমানাসরিন। ফেসবুকে এক পোষ্টে তিনি এমন্তব্য করে পুরুষদের বোরখা পরারপরামর্শ দেন। তিনি বলেন শুধু চুরি বাডাকাতি করার সময়ে তারা বোরখাপরে। কিন্তু সামাজিক জীবনেওবোরখা ব্যবহার করতে পারে। তিনিবলেন পুরুষেরা এটি না পরে বরাবরমেয়েদের শরীরে চাপিয়েছে। তিনিআশা করেন এখন যেমনটা ঘটছেচিরকাল সেরকমঠা ঘটবে এমনটা আশাকরা ঠিক ঠক হবে না। দেখুনতারফেসবুক পোষ্টটি: ধার্মিকধার্মিক পুরুষগুলো বোরখাজিনিসটাকে খুব পছন্দ করে। এত পছন্দ,তারপরও তারা নিজেরা কেন বোরখাপরছে না, বুঝিনা। শুধু চুরি ডাকাতিকরতে গেলে, বা কাউকে খুন করতেগেলেই পরছে। সামাজিক জীবনেওতো বোরখাটা পরতে পারে। তাদেরঘন কালো চুলেও তো সেক্স অ্যাপিলথিকথিক করছে। ওই চুল দেখে কোনমেয়েই না উত্তেজিত হয়! তারপরগোটা একটা শরীর তো আছেই। সুঠামবাহু, বুক, বুকের লোম, উরু ! উরু সন্ধিতেতো দৃষ্টি যেতে বাধ্য। পুরুষরা বোরখানা পরলে মেয়েদের হরমোন মেয়েরাকী করে সামাল দেবে! এ তোছেলেখেলা নয়। নিজেরা পরছে না,অথচ এটি মেয়েদের শরীরে চাপায়তারা, গায়ের জোরে, এবং আরও নানাকিছুর জোরে। যা এখন ঘটছে, তা-ই যেচিরকাল ঘটবে তা তো নয়। সমাজেরকত কিছু রাতারাতি উল্টে যায়। এমনহলে কেমন হয় যে, মেয়েরা এতকালবোরখার যে অভিজ্ঞতাটা অর্জনকরেছে, সেটা পুরুষরা এখন অর্জন করুক!
Share:

যৌন মিলন এড়ানোর ১০ অজুহাত দেখেনিন অবাক করা কথা

রুষের সুঠাম শরীর আর ঘন কালো চুলদেখে মেয়েরাও উত্তেজিত হয় বলেমন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ থেকেনির্বাসিত লেখিকাতসলিমা নাসরিন। ফেসবুকে একপোষ্টে তিনি এ মন্তব্য করে পুরুষদেরবোরখা পরার পরামর্শ দেন।তিনি বলেন শুধু চুরি বা ডাকাতিকরার সময়ে তারা বোরখা পরে। কিন্তুসামাজিক জীবনেও বোরখা ব্যবহারকরতে পারে।তিনি বলেন পুরুষেরা এটি না পরেবরাবর মেয়েদের শরীরে চাপিয়েছে।তিনি আশা করেন এখন যেমনটা ঘটছেচিরকাল সেরকমঠা ঘটবে এমনটা আশাকরা ঠিক ঠক হবে না।দেখুন তারফেসবুক পোষ্টটি:ধার্মিক পুরুষগুলো বোরখাজিনিসটাকে খুব পছন্দ করে। এত পছন্দ,তারপরও তারা নিজেরা কেন বোরখাপরছে না, বুঝিনা। শুধু চুরি ডাকাতিকরতে গেলে, বা কাউকে খুন করতেগেলেই পরছে। সামাজিক জীবনেওতো বোরখাটা পরতে পারে। তাদেরঘন কালো চুলেও তো সেক্স অ্যাপিলথিকথিক করছে। ওই চুল দেখে কোনমেয়েই না উত্তেজিত হয়! তারপরগোটা একটা শরীর তো আছেই। সুঠামবাহু, বুক, বুকের লোম, উরু ! উরু সন্ধিতেতো দৃষ্টি যেতে বাধ্য। পুরুষরা বোরখানা পরলে মেয়েদের হরমোন মেয়েরাকী করে সামাল দেবে! এ তোছেলেখেলা নয়। নিজেরা পরছে না,অথচ এটি মেয়েদের শরীরে চাপায়তারা, গায়ের জোরে, এবং আরও নানাকিছুর জোরে। যা এখন ঘটছে, তা-ই যেচিরকাল ঘটবে তা তো নয়। সমাজেরকত কিছু রাতারাতি উল্টে যায়। এমনহলে কেমন হয় যে, মেয়েরা এতকালবোরখার যে অভিজ্ঞতাটা অর্জনকরেছে, সেটা পুরুষরা এখন অর্জন করুক!
Share:

আসুন জেনে নিই নিয়মিত সেক্সের উপকারিতা কাজে লাগবে।

জীবনকে সুন্দর ও সহজ করে তুলতেআপনার প্রয়োজন সেক্স। তবে শুধুসেক্স হলেই হবে না, সেক্স হতে হবেআনন্দদায়ক ও নিয়মিত। এমনকিনিয়মিত আনন্দদায়ক সেক্স বাড়িয়েদিবে আয়ু। পাঠকদের জন্য এই বারেরআয়োজন সেক্সের উপকারিতা।মানসিক চাপ কমান:সেক্স মানসিক চাপ কমাতে সহায়তাকরে। মানসিক চাপ কমানোর আর কোনউপায় হাতের কাছে না থাকলে সেক্সহতে পারে সহজ ও কার্যকর কৌশল।সেক্সের সময় ডোপামিন হরমোনেরক্ষরণ বেড়ে যায়। ডোপামিনকে বলাহয় ‘সুখের হরমোন’। ডোপামিন কয়েকধরণের হরমোনের কার্যক্ষমতা কমায়যেমন, এন্ড্রোমিন। মানসিক চাপবেড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ হচ্ছেএন্ড্রোমিনের ক্ষরণ বেড়ে যাওয়া।ব্যয়াম হিসেবে নিতে পারেন:সেক্সকে শরীর চর্চা হিসেবেও নিতেপারেন। সেক্স করার সময় শ্বাস-প্রশ্বাসের হার বেড়ে যায়। ফলে,শরীরে অতিরিক্ত চর্বি জমতে পারেনা। হিসেব করে দেখা গেছে,সপ্তাহে তিনবার মোট পনের মিনিটসেক্স করলে বছরে ৭.৫ ক্যালরি চর্বিশক্তিতে রুপান্তরিত হয়। বিস্ময়করহলেও সত্যি সপ্তাহে তিনবার করেমোট পনের মিনিট সেক্স করলে ৭৫মাইল হাটার সমান শক্তি ক্ষয় হয়।এছাড়া সেক্সের মতো শরীর চর্চাকরলে কোষে অক্সিজেনের পরিমাণবেড়ে যায়। এতে পেশী ও হাড় আরোশক্তিশালী হয়।রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সেক্স:সেক্স করার সময় রক্তচাপও কমে যায়।তবে, শুধুমাত্র সেক্স নয়, সেক্সের সময়আবেগের প্রকাশ করতে গিয়েওরক্তচাপ স্বাভাবিক নিয়ন্ত্রণের মধ্যেচলে আসে। এমনই একটি কাজ হচ্ছে,যৌনসঙ্গীকে জড়িয়ে ধরা।সেক্স রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়েদেবে:সেক্স রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাওবাড়িয়ে দেয়। সর্দি-কাশির মতোরোগ সারিয়ে তুলতে চিকিৎসকেরপরামর্শ না চেয়ে শরনাপন্ন হতেপারেন যৌনসঙ্গীর। আমাদের শরীরেফ্লু’র মতো রোগ প্রতিরোধ করেইমিউনোগ্লোবিন এ। সেক্সেরপরিমাণ বাড়ার সাথে সাথে শরীরেইমিউনোগ্লোবিন এ’র পরিমান বাড়তেথাকে।তারুণ্য ধরে রাখুন:অনেকেই তরুণ থাকতে চান। তাদেরজন্য তো কথাই নাই। তারুণ্য ধরেরাখতে যৌনসঙ্গীর গুরুত্ব অপরিসীম।একজন স্কটিস গবেষকের মতে, সপ্তাহেতিনবার সেক্স করলে আপনার বয়সকমপক্ষে ১০ বছর কম মনে হবে।হৃদয়ের যত্ম নিতে সেক্স:হৃদপিণ্ডের যত্ন নিতেও নিয়মিত সেক্সকরতে পারেন। এমনকি সেক্স মানুষকেহার্ট এ্যাটাকের মতো বিপদ থেকেওবাঁচিয়ে দিতে পারে। তবে শর্তএকটাই সেক্সের সমগ্র প্রক্রিয়াটিউপভোগ্য হতে হবে। নিউ ইংল্যান্ডরিসার্চ ইনিস্টিটিউটের গবেষণামতে, কোন পুরুষের যৌন জীবনস্বাভাবিক হলে হৃদরোগে আক্রান্তহওয়ার সম্ভাবনা ৪৫ ভাগ কমে যায়।ব্যথা থেকে মুক্তির জন্য:এমনকি আপনি যদি মাইগ্রেনের রোগীহোন কিংবা শরীরে ব্যথাজনিতসমস্যা থাকে তাহলেও সমস্যাসমাধানের উপায় হিসেবে সেক্সকেবেছে নিতে পারেন।পারস্পরিক আস্থা বাড়াতে:কারও বন্ধু বা বান্ধবীকে নিয়ে মনেসন্দেহ জাগতেই পারে। সাধারণতোসন্দেহ আর ঝগড়া করেই তখন প্রেমিক-প্রেমিকাদের সময় যায়। ফলে, সম্পর্কভেঙ্গে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।সন্দেহ জাগলে কোন কথা নেই। সেক্সইহচ্ছে কার্যকর সমাধান। সেক্স করলেঅক্সিটোসিন নামের হরমোনেরসক্রিয়তা বাড়ে। অক্সিটসিনপ্রেমিক- প্রেমিকাদের মধ্যেবিশ্বাস ও আস্থা বাড়াতে সহায়তাকরে।ক্যান্সারের ঝুঁকি কমান:নিয়মিত বীর্যক্ষরণ হলে প্রোস্টেটক্যান্সারের সম্ভাবনা কমে যায়।অস্ট্রেলিয়ায় একটি গবেষণায় দেখাগেছে, যে সকল পুরুষ মাসে কমপক্ষে ২১বার বীর্যপাত ঘটিয়েছেন তাদেরক্যান্সারের ঝুঁকি কমে গেছে।পেশীর শক্তি বাড়ান:সেক্স করার সময় শরীরের একাধিকপেশী কাজে লাগে। শরীরের একাধিকপেশীসহ মুত্রথলি ও মলাশয়েরপেশীগুলোও নিয়মিত সেক্স করারফলে স্বাস্থ্যবান হয়ে ওঠে।ভাল ঘুমের জন্য সেক্স:ভাল শরীর চর্চা হিসেবে সেক্সেরজুড়ি নাই। তাই, যাদের ঘুমের সমস্যাতাদের জন্য সেক্স খুবই গুরুত্বপূর্ণ।নিয়মিত সেক্সের ফলে শরীর ও মনভাল থাকে। ফলে, রাতে ঘুমের সমস্যাহয় না।রজঃচক্র স্বাভাবিক রাখুন:মানসিক চাপের কারণে কখনও কখনওরজঃচক্র বন্ধ হয়ে যেতে পারে।আপনিতো জানেনই মানসিক চাপকমানোর জন্য সেক্সের জুড়ি নাই।তাই রজঃচক্রে অস্বাভাবিকতা দেখাদিলে মনযোগ দিন যৌন জীবনে।নিয়মিত সেক্স করলে আপনার রজঃচক্রস্বাভাবিক হয়ে উঠবে। এছাড়া, সেক্সকরলে শরীরে এমন কতগুলো হরমোনেরনিঃসরন যেগুলো রজঃচক্রকেস্বাভাবিক রাখে।দীর্ঘদিন বাঁচুন:মানসিক চাপ মুক্ত থাকা দীর্ঘআয়ুষ্কালের অন্যতম কারণ। যেহেতুসেক্স মানসিক চাপ কমায় তাই সেক্সআয়ুষ্কালও বাড়ায়
Share:

শারীরিক মিলনের সময় নারীর যেসবশব্দে পুরুষরা পাগল হয়

নারী-পুরুষের শারীরিক মিলন এমনএকটি বিষয় যা মানুষকে আনন্দ দেয়।শুধু আনন্দই নয়, বিশেষজ্ঞরা বলেন,এতে মানসিক প্রশান্তিও আসে।একজন নারী ও একজন পুরুষ যখনশারীরিক সম্পর্কে আবদ্ধ হন তখনবিভিন্ন ধরনের আবেদনময়ী শব্দকরেন। এই শব্দ একে অপরের মধ্যে আরওবেশি আবেগের সৃষ্টি করে।সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে,শারীরিক সম্পর্কের সময় এমন মধুর শব্দশুধু নারীরাই করতে পারেন। পুরুষরা যেশব্দ করেন তা নারীদের কাছে ‘কর্কশ’মনে হয়। নারীরা পুরুষের এমন শব্দে খুববেশি আলোড়িতও হন না। তবেনারীদের শব্দ পুরুষদের পাগল করেতোলে।মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মনোবিজ্ঞানীসুশান হাগ বলছেন, ‘সেক্সুয়াল সাউন্ডহচ্ছে এমন শব্দ যা জোরে শোনা যায়না, নিঃশ্বাসের সঙ্গে প্রবাহিত হয়।নারীদের এমন শব্দ পুরুষকে আন্দোলিতকরে।’তিনি আরও বলেন, ‘নারী ও পুরুষ তাদেরমধ্যে যৌনমিলনের সময় অনেকসময়অবচেতনভাবেই শব্দ করেন। এটিতাদের আরও প্রশান্তি দেয়। তবে এমনশব্দ করতে পুরুষরা বেশি দক্ষ নন।এক্ষেত্রে নারীরাই বেশি পারদর্শী।’
Share:

কোন দিন রোজা রাখলে পূর্ববর্তীএক বছরের গুনাহ মাফ করে দেওয়া হবে?

ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা।একজন মানুষের জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত এবংপ্রতিদিন ঘুম থেকে জাগ্রত হওয়ার পর,দিন শেষে আবার ঘুমাতে যাওয়ার পূর্বপর্যন্ত একটি জীবনের সর্বাঙ্গীণ কল্যাণকামনাই ধর্মের মূল দর্শন।ইসলাম মানুষকে যেমন ভালো কাজ ও আমলকরার তাগিদ দিয়েছে, তেমন খারাপ কাজও মন্দ আমল থেকে বিরত থাকার কথাবলেছে। ইসলামের মতো এমন ভারসাম্যপূর্ণআর কোনো ধর্ম বা জীবন ব্যবস্থারআর্বিভাব এ ধরাতে ঘটেনি।আরবী বর্ষপঞ্জী অনুযায়ী ১২ মাসের প্রায়প্রতি মাসেরই কোনো না কোনো বিশেষদিবস বা দিন রয়েছে এবং সেসব বিশেষদিবস বা দিনে বিশেষ আমল-ইবাদতেরদিক-নির্দেশনা রয়েছে। এছাড়া আরবী ১২মাসের মাঝে কিছু মাসকে অন্য মাসেরতুলনায় সম্মানিত বা বিশেষ বলা হয়েছে।রাসুল (সা.) ইরশাদ করেছেন, আরবী একবছরে ১২ মাস।আর এই ১২ মাসের মধ্যে চার মাস বিশেষতাৎপর্যের অধিকারী। এই চারটি মাসেরতিনটি মাস ধারাবাহিকভাবে (অর্থাৎজিলকদ, জিলহজ ও মহররম) এবং চতুর্থ মাসহলো রজব মাস। (বুখারি, হাদিস নং-৪৬৬২,মুসলিম, হাদিস নং-১৬৭৯)আরবী ১২ মাসের প্রথম মাস মুহাররম। এইমাসের ১০ তারিখ একটি ঐতিহাসিক দিন।এই দিনটিকে আশুরার দিন বা দিবস বলাহয়। এই দিনে বিশেষ যেসব আমলের কথাইসলামে বর্ণিত হয়েছে তার মাঝে অন্যতমএকটি আমল হলো রোজা রাখা। এই দিনরোজা রাখার ফজিলত ব্যাপক এবং এদিনেরোজা রাখার ব্যাপারে রাসুল (সা.)উৎসাহিত করেছেন।প্রসিদ্ধ সাহাবি হজরত আবু হুরায়রা (রা.)থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেছেন,‘রমজান মাসের রোজা বা সাওমের পরসর্বোত্তম রোজা বা সাওম হলো মহররমমাসের রোজা। (মুসলিম, হাদিসনং-১/৩৬৮)হজরত আবু কাতাদা (রা.) থেকে বর্ণিত,রাসুল (সা.) ইরশাদ করেছেন, ‘আশুরারদিনের রোজার ব্যাপারে আমি আল্লাহরকাছে আশাবাদী যে তিনি এর ফলেপূর্ববর্তী এক বছরের গুনাহ মাফ করেদেবেন। (মুসলিম, হাদিস নং-১১৬১,তিরমিজি, হাদিস নং- ৭৪৯)এই বর্ণনাটি সুনানু ইবনে মাজাহ গ্রন্থের১৭৩৮ নং হাদিসে এভাবে এসেছে, হজরতআবু কাতাদাহ (রা) থেকে বর্ণিত। নবীকরীম (স) ইরশাদ করেন, আমি আশা করি,আশুরা রোজার উসিলায় আল্লাহ তায়ালাঅতীতের এক বছরের গুনাহ ক্ষমা করেদেবেন।রাসূলের (সা.) আদেশের কারণে আশুরারদিন রোজা পালন করা সবার জন্য ওয়াজিবহিসেবে গণ্য হতো। এরপর যখন রমজানমাসের রোজার হুকুম নাজিল হলো, তখনআশুরার রোজার হুকুম ওয়াজিব থেকেসুন্নাতের পর্যায়ে নেমে এলো। এ বিষয়টিসম্পর্কে রাসূল (সা.) বলেছেন, যে চায় সে(আশুরার দিন) রোজা রাখতে পারে এবং(আশুরার দিন রোজা) না রাখলেও ক্ষতিনেই। (সহিহ বোখারি ও মুসলিম)এছাড়া সর্বাধিক হাদিস বর্ণনাকারীপ্রসিদ্ধ সাহাবি হজরত আবু হোরায়রা (রা)থেকে বর্ণিত, রাসূল (সা.)বলেছেন, ‘যদিআমি আগামী বছর বেঁচে থাকি তাহলেআশুরার দিনের সাথে নবম দিনেও অবশ্যইরোজা রাখব। (মুসলিম, হাদীস নং- ২১৫৪)রাসুলের (সা.) এই বর্ণনাটির দ্বারা একথাবোঝা যায় যে, আশুরার দিন শুধু একটিরোজা না রেখে আশুরার দিনের আগে বাপরে আরো একটি রোজা রাখা উচিত।-প্রিয় ইসলাম
Share:

সেক্স করার আগে স্বামী বা বয়ফ্রেন্ড অর্থাৎ পুরুষ সেক্স- পার্টনারের কর্তব্য

০১। স্বামী বা বয়ফ্রেন্ড বা পুরুষ সেক্স-পার্টনারের কর্তব্য হলো,স্ত্রী বা গার্লফ্রেন্ড বা নারী সেক্সপার্টনারকে প্রিয়তমা জ্ঞানে বাসত্যিকারের কামনারনারী ভেবে নিয়ে নিজের তৃপ্তিরসঙ্গে সঙ্গে তারও দৈহিক ও মানসিকতৃপ্তি বিধান করা। নিজেরকামনা পরিতৃপ্ত করাই সম্ভোগের একমাত্রলক্ষ্য হওয়া উচিত নয়।০২। কোন প্রকার বল প্রয়োগকরা আদৌ বাঞ্ছনীয় নয়।একথা মনে রাখতেই হবে।০৩। চুম্বন, আলিঙ্গন , ঘর্ষন, নিপীড়নইত্যাদি নানাভাবে স্ত্রী বা গার্লফ্রেন্ডবা নারী সেক্স পার্টনারের মনে পূর্ণকামভাব জাগিয়ে তারপর তারসঙ্গে সহবাসে রত হওয়া প্রতিটি পুরুষেরপ্রধান কর্তব্য।০৪। স্ত্রী বা গার্লফ্রেন্ড বা নারীসেক্সপার্টনার ধীরে ধীরে আত্নসমর্পণনা করা পর্যন্ত তার সঙ্গে কখনও সঙ্গমবা সহবাসে লিপ্ত হওয়া উচিত নয়।০৫। নারী কখনও নিজের যৌনউত্তেজনাকে মুখে প্রকাশ করে না।তবে সেটা অনেকটা লক্ষণদেখে বুঝে নিতে হয়।০৬। নারীর উত্তেজনা ধীরে ধীরেআসে-আবার তা ধীরে ধীরে তৃপ্ত হয়।পুরুষেরউত্তেজনা আসে অকস্মাৎ আবারতা অকস্মাৎ শেষ হয়। তাই নারীর পূর্ণকামভাব না জাগিয়ে সহবাসবা সঙ্গমে মিলিত হলে নারী পূর্ণতৃপ্তি পেতে পারে না। এরকমকরা যৌননীতিবিরুদ্ধ। এতে নারী পূর্ণতৃপ্তি পায় না- এর জন্যে সে অন্য পুরুষপর্যন্ত গমন করতে পারে। দাম্পত্যজীবনে অনেক বিপর্যয় এরজন্যে আসতে পারে।০৭। পুরুষ রতি ক্রিয়ার প্রথমে যথেষ্টউত্তেজিত হয়। কিন্তু একবার বীর্য্যপাতঘটে গেলে সঙ্গে সঙ্গে আবাররতিক্রিয়ায় পুরুষের আর পূর্বের মতউত্তেজনা থাকে না।নারীর উত্তেজনা কিন্তু ভিন্ন প্রকারের।প্রথম রতিক্রিয়ায় সে বিশেষ আগ্রহদেখায় না। কিন্তু যখন রতিক্রিয়া কিছুক্ষনচলে তখন ক্রমশঃ তার আগ্রহবাড়তে থাকে। পরে পুরুষের বীর্য্যপাতঘটলেও নারীর রতিক্রিয়ার আগ্রহক্রমশঃ বাড়তে থাকে।এইজন্য কামশাস্ত্র লেখকেরা বলেন-নারীর সহিত রতিক্রিয়া আরম্ভকরতে হলে একেবারেই প্রথম থেকেইরতিক্রিয়া করা উচিত নয়। প্রথমে নারীরসঙ্গে কথাবার্তা বলা দরকার, তারপরতাকে চুম্বন, দংশন , নখচ্ছেদ ও আলিঙ্গনইত্যাদি প্রাথমিক ক্রিয়া করা উচিত।এ সকল প্রাথমিক রসালাপ অঙ্গ-মর্দন, অধর,চুম্বন ইত্যাদিতে যখন নারীরকামেচ্ছা প্রবল থেকে প্রবলতর হবেতখনসঙ্গমের জন্য প্রস্থত হওয়া দরকার।০৮। একেবারে দর্শন মাত্রেইরতিক্রিয়া আরম্ভ করা উচিত নয়।তাতে নারীর কামেচ্ছা তেমন জাগ্রত হয়না। কাজেই উভয়েরপক্ষে রতিক্রিয়া তেমন আনন্দদায়ক হয় না।০৯। ক্রুদ্ধ বা চিন্তিতমেজাজে স্ত্রী সহবাস উচিত নয়। মেজাজপ্রফুল্র না হলে সময় নেয়া প্রয়োজন।ততোক্ষন পর্যন্তপুরুষকে অপেক্ষা করে প্রেম-ভালোবাসারভাব ফুটিয়ে তোলাই কর্তব্য।১০। সঙ্গম বা সহবাসে লিপ্ত হওয়ারআগে নারীর শরীরে প্রকৃত বা আসলউত্তেজনা এসেছে কীনা তাওবোঝা প্রয়োজন, প্রকৃত বা আসলউত্তেজনা না এলে সঙ্গমবা সহবাসে নারীর পূর্ণতৃপ্তি আসতে পারেনা।
Share:

Airtel ফিরে আসলেই পাচ্ছেন মেগা ২০ জিবি অফার!সাথে থাকছে আকর্ষণীয় কলরেট।

প্রথমে সবাইকে জানাই আমার সালাম।দেশের অন্যতম মোবাইল সেবাদানকারীপ্রতিষ্ঠান এয়ারটেল তাদের গ্রাহকদেরজন্যপ্রতিনিয়ত দিচ্ছে আকর্ষণীয় লোভনীয় সবঅফার।তারই পরিপ্রেক্ষিতে এবার এয়ারটেলের বন্ধসংযোগ চালু করলেই পাচ্ছেন ২০ জিবিইন্টারনেট।প্রথমে আপনার বন্ধ সিমটি অফারটির আওতাভুক্তকিনা তা জানতে ডায়াল করুন *৯৯৯#সিম চালু করেই ২১ টাকা রিচার্জ করে পাচ্ছেন ১ জিবিডাটা সব ধরণের ব্যবহারের জন্য+১ জিবি ফেসবুকডাটা।যার মেয়াদ ১০ দিন।অফারটি প্রতি মাসে ১ বারনেওয়া যাবে। ব্যবহার করা যাবে যেকোনোসময়।এরপর,প্রতি মাসে ২১ টাকা বা তার বেশি ব্যবহারকরে পাবেন যেকোনো ভাবে ব্যবহারেরজন্য ১ জিবি ডাটা এবং ১ জিবি ফেসবুক ডাটা।ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *৮৪৪৪*৮৮#এছাড়াও,২১ টাকা রিচার্জে পাচ্ছেন ৩০ পয়সা প্রতিসেকেন্ডে অন নেটে (airtel/robi) এবং ৬০পয়সা প্রতি সেকেন্ডে অন্য অপারেটরে কথাবলার সুযোগ।
Share:

নিয়ে নিন গ্রামীণ সিমের আকর্ষণীয় কিছু টকটাইম অফার কোড!

গ্রামীণফোন কোম্পানি প্রতিনিয়ত তাদেরগ্রাহকদের সুবিধার্থে চালু করেছে নতুন সবঅফার|তারমধ্যে অন্যতম একটি হলো টকটাইম অফার|নিচে কিছু টকটাইম অফারের কোড দেওয়াহলো|যারাজানেন না,আশাকরি তাদের কাজে লাগবে১) ৪ মিনিট ১.৭০ টাকায়|মেয়াদ ৪ ঘন্টা|নিতে ডায়াল করুন*১২১*৪*১#২) ১০ মিনিট ৩.৭০ টাকায়|মেয়াদ ৬ ঘন্টা|নিতে ডায়াল করুন*৫০০০*৭০#৩) ১২ মিনিট ৪.২০ টাকায়|মেয়াদ ৮ ঘন্টা|নিতে ডায়াল করুন*১২১*৪০৫৯#৪) ১৫ মিনিট ৫ টাকায়|মেয়াদ ৬ ঘন্টা|নিতেডায়াল করুন*১২১*৪০৬০#৫) ২০ মিনিট ৭ টাকায়|মেয়াদ ১০ ঘন্টা|নিতেডায়াল করুন*১২১*৪*২#৬) ২৪ মিনিট ৮.১৬ টাকায়|মেয়াদ ১ দিন|নিতে ডায়াল*১২১*৪*৩#৭) ৪০ মিনিট ১৪ টাকায়|মেয়াদ ১৬ ঘন্টা|নিতে ডায়াল*১২১*৪*৪# অথবা ১৪ টাকা রিচার্জ করুন|৮) ৭৫ মিনিট ২৪ টাকা|মেয়াদ ১ দিন|নিতেডায়াল *১২১*৪*৫#৯) ১০০ মিনিট ৩০.৪৪ টাকা|মেয়াদ ১ দিন|নিতে ডায়াল*১২১*৪০৬৬#১০) ৩০০ মিনিট ৯৪ টাকায়|মেয়াদ ৭ দিন|নিতে ডায়াল*১২১*৪*৬#
Share:

Grameenphone অফিস থেকে অপ্রয়োজনীয় SMS আসা বন্ধ করুনঃ

গ্রামীণ সিমের অফিস থেকে প্রতিদিনঅপ্রয়োজনীয় SMS আসে যা খুবেইবিরক্তিকর একটি বিষয়। আজকে আমিআপনাদেরকে দেখাবো কিভাবে এইঅপ্রয়োজনীয় SMS আসা বন্ধ করবেন।.প্রথমে আপনার গ্রামীণ সিম থেকেডায়াল করুনঃ *121*1101#.উপরের কোডটি ডায়াল করার পর থেকে আরঅপ্রয়োজনীয় SMS এসে আপনাকে ডিস্টাবকরবে না।.এই সার্ভিসটি পুরনায় চালু করতে ডায়ালকরুনঃ *121*1102# কারো কোন সমস্যাথাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।
Share:

সেই অফার গ্রামীণফোন এ ১০০এম্বি ফ্রি যলদি নিয়েনিন।

হ্যালো ফ্রেন্ডস। সবাই কেমন আছেন? আসাকরি ভালো এ আছেন।ওনেক দিন হল কিছুপোস্ট করা হয়নি।আসলে আগের মতোপোস্ট করার ইন্টারেস্ট আর পাইনা।আর সামনেআমার এক্সাম।এই জন্য যতটা পারি ইন্টারনেটথেকে দূরে থাকছি।যাইহোক আজকে একটা মেসেজ আসছেফোনে গা ফ্লেক্সিপ্লান ডাউনলোড করলে /update করলে 100 mb ফ্রী।তএইshare করলাম।
Share:

Banglalink নতুন সংযোগ কিনলেই পাচ্ছেন 12GB পর্যন্ত ফ্রী ইন্টারনেট এবং 31টাকা রিচার্জেই পাচ্ছেন স্পেশাল কলরেট।

আশা করি সবাই ভালোই আছেন… আমি ও ভালআছি। আপনারা জেনে খুশি হবেন যে…..বাংলালিংক-এর নতুন সংযোগে দারুণ অফারনতুন বাংলালিংক প্রিপেইড সংযোগে এখন পাচ্ছেনদারুণ অফার! মাত্র ৩১ টাকা রিচার্জে যেকোনোবাংলালিংক নাম্বারে .৫ পয়সা/সেকেন্ড ও অন্যঅপারেটরে ১ পয়সা/সেকেন্ড, সাথে আরওথাকছে ১২জিবি পর্যন্ত ইন্টারনেট! এই অফারটিসেইসব প্রিপেইড গ্রাহকদের জন্য প্রযোজ্যযারা ৮ অক্টোবর, ২০১৭ বা তারপর সংযোগ ব্যবহারকরা শুরু করেছেন।৩১ টাকা প্রথম রিচার্জেঃবাংলালিংক নাম্বারে ০.৫ পয়সা/সেকেন্ডও অন্যঅপারেটরে ১ পয়সা/সেকেন্ড-এর স্পেশ্যালট্যারিফ, ৯০ দিনের মেয়াদে। একবার ট্যারিফ শেষহয়ে গেলে মূল প্যাকেজ রেট কার্যকর হবে১জিবি ইন্সট্যান্ট বোনাস পাওয়া যাবে, যার মেয়াদথাকবে ১৫ দিনইন্টারনেট ব্যালেন্স জানতে ডায়াল*১২৪*৬৩#স্পেশাল ট্যারিফ থেকে আনসাবস্ক্রাইবকরতেডায়াল করুন *১৬৬*৩৪৫#১জিবি বোনাস ইন্টারনেট প্যাকের প্রতিদিনেরসর্বোচ্চ ব্যবহারের লিমিট ৩৫০এমবিPay as you go রেট হচ্ছে ১ টাকা/এমবি, পালস১০কেবি। যার মানে ০.০১২১৭৫/১০কেবি হারে চার্জকরা হবে (এসডি, ভ্যাট ও এসসি-সহ)ডিসকাউন্টেড রেটে ১১জিবি পর্যন্ত ইন্টারনেটপ্রথমবার ৩১ টাকা রিচার্জের ১৫ দিন পরে গ্রাহকরামাত্র ৯ টাকা রিচার্জে দারুণ ডিসকাউন্টে ৭ দিনেরমেয়াদে ১জিবি ইন্টারনেট প্যাক কিনতে পারবেনইন্টারনেট ব্যালেন্স জানতে ডায়াল*১২৪*৬৩#গ্রাহকরা ৫.৫ মাসে ১৫ দিন পরপর সর্বোচ্চ ১১ বারস্পেশাল ডিসকাউন্টে ১জিবি ইন্টারনেটপ্যাকটিকিনতে পারবেন১জিবি ডিসকাউন্টেড ইন্টারনেট প্যাকেরপ্রতিদিনের সর্বোচ্চ ব্যবহারের লিমিট ৩৫০এমবিঅ্যাক্টিভেশন বোনাসঃপ্রি-লোডেড ৫ টাকা ব্যালেন্স, ১৫ দিনেরমেয়াদে যেকোনো বাংলালিংক সার্ভিসেব্যবহারের জন্য। ব্যালেন্স জানতে ডায়াল করুণ*১২৪#৫০এমবি বোনাস ইন্টারনেট, মেয়াদ ৩ দিন।ইন্টারনেট ব্যালেন্স জানতে ডায়াল*১২৪*৫#৫০টি বাংলালিংক-বাংলালিংক বোনাস এসএমএস, মেয়াদ ১০দিন। এসএমএস ব্যালেন্স জানতে ডায়াল*১২৪*৪#আমার টিউনে ফ্রি বাংলালিংক টিউন, মেয়াদ ৩০ দিন।প্রথম আউটগোয়িং কলটি করার ৬ দিন পর আমারটিউন সার্ভিসটি চালু হবে। এক মাস পরে সার্ভিসটিবন্ধ হয়ে যাবে। সাবস্ক্রিপশন-এর মেয়াদ বাড়াতে‘start’ লিখে পাঠিয়ে দিন ২২২২ নাম্বারে২০.৮৩ পয়সা/১০ সেকেন্ড যেকোনোনাম্বারে দিন-রাত ২৪ ঘন্টাঅন্যান্য শর্তাবলীঃএই অফারটি সীমিত সময়ের জন্য চলবেযদি কোনো গ্রাহক অফারটি থেকেআনসাবস্ক্রাইব করেন, তবে তিনি পুনরায় অফারটিনিতে পারবেন নাএই অফারটি শুধুমাত্র ‘দেশ এক রেট দারুণ’গ্রাহকদের জন্য প্রযোজ্য৩১ টাকা রিচার্জের অফারটি শুধুমাত্র নতুন গ্রাহকদেরজন্য প্রযোজ্য এবং শুধুমাত্র প্রথম রিচার্জে এইঅফারটি পাওয়া যাবে; অন্যান্য ক্ষেত্রে অফারটিপ্রযোজ্য নয়৫% সাপ্লিমেন্টারি ডিউটি (এসডি), এসডিসহ ট্যারিফেরউপর ১৫% ভ্যাট ও বেস ট্যারিফের উপর ১%সারচার্জ প্রযোজ্য হবে
Share:

Grameenphone সিম এ নিয়ে নিন মাত্র ৯ টাকায় ৫০ MB ইন্টারনেট! তাও, ২ দিন মেয়াদে!

অফারটি লুফে নিন!অফারটি ছোট্ট! তবে ১০ টাকায় ৩৫ মেগাকেনার চেয়েও ভালো,তাই শেয়ার করছি!!dial_*121*3506#
Share:

বাংলালিংক সব গ্রাহগ দের জন্য ৫০ এম্বি করে ফ্রি দিচ্ছে তাই যলদি নিন।

ইউজাররা*166*17# ডায়াল করুন।তারপর *124*5# চেককরুন।আমাকে 50দিয়েছে।আপনাকেমিনিট ও দিতে পারে।ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন ।
Share:

গ্রামীণফোন ইন্টারনেট অফার ২ জিবি ৯ টাকা এবং ৮ জিবি ৩৬ টাকা!

এর জন্য আপনার যা লাগবেঃএকটি অব্যবহৃত গ্রামীণফোন সিম যেটি গতদেড় মাস বা তার চেয়ে বেশি সময় বন্ধছিল। প্রথমে আপনার একটি সচলগ্রামীণফোন সিম থেকে অব্যবহৃতগ্রামিনফোন সিমের নম্বরটি যাচাই করেনিন ।আপনার সিমটি এই অফারের আওতাভুক্তআছে কিনা… যাচাই করতে আপনারমোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে টাইপকরুন BHK Your unused phone number এবংপাঠিয়ে দিন 9999 নাম্বারে। BHK017******** এবংপাঠিয়ে দিন 9999 নাম্বারেযদি এরকম “you are eligible for’ ম্যাসেজ পানতাহলে আপনি ৩৬ টাকা খরচ করে ৪ বারে৮ জিবি ইন্টারনেট ডাটা কিনতেপারবেন। কিভাবে নিবেন সেটা ফিরতিএসএমএস এর মাধ্যমে জানতে পারবেন।কেউ বাজে কমেন্ট করবেন না।
Share:

সুপার অপার এখন রবিতে ফিরলেই পাচ্ছেন এক বছরের জন্য ফ্রী ইন্টারনেট

আসসালামু আলাইকুমআশা করি আল্লাহর রহমতে সকলেই ভালআছেন। আমিও ইনশাল্লাহ ভাল আছি। আজঅনেকদিন পর একটি পোস্ট করছি।আজকের বিষয়টি ইতিমধ্যে জেনেগেছেনডাটা অফার ও কল রেট১ম বার ২৯ টাকা রিচার্জে গ্রাহক নিচেরসুবিধাগুলোপাবেন:৭ দিন মেয়াদে (২৪ ঘন্টায়ই) ১ জিবি ফ্রি (কেবলএকবার)।৩০ দিনে (২৪ ঘন্টার জন্যেই) যেকোন রবি/এয়ারটেল নম্বরে ০.৫ পয়সা/সেকেন্ড এবং অন্যঅপারেটরে ১ পয়সা/সেকেন্ড (যতবার ইচ্ছে)।১ম বার ১০০ টাকা রিচার্জে গ্রাহক নিচের সুবিধাগুলোপাবেন:৭ দিন মেয়াদে (২৪ ঘন্টায়ই)২ জিবি ফ্রি (কেবলএকবার)।৯০ দিনে (২৪ ঘন্টার জন্যেই) যেকোন রবি/এয়ারটেল নম্বরে ০.৫ পয়সা/সেকেন্ড এবং অন্যঅপারেটরে ১ পয়সা/সেকেন্ড (যতবার ইচ্ছে)।২য় বারে ২৯ টাকা/১০০ টাকা রিচার্জে গ্রাহক কেবলবিশেষ কল রেট সুবিধা পাবেন; ফ্রি ডাটা পাবেন না।প্রথম ২৯ টাকা/১০০ টাকা রিচার্জের পর ৩০ দিনেরমধ্যে গ্রাহক ২য় বার সংশ্লিষ্ট ডাটা বোনাস সুবিধাপাবেন না।২৯ টাকা/১০০ টাকা রিচার্জ করা হলে গ্রাহক সকল সুবিধারজন্যে নিবন্ধিত হবেন। এই রিচার্জ ছাড়া গ্রাহকএসব সুবিধা পাবেন না।গ্রাহক ২৯ টাকা এবং ১০০ টাকা রিচার্জ না করলে বিশেষঅভার উপভোগ করতে পারবেন না, এবংপরবর্তীতে ২৯ টাকা/১০০ টাকা রিচার্জ না করাপর্যন্ত তার ট্যারিফ প্ল্যান নিয়মিত থাকবে।২য় মাসে ২৯ টাকা/১০০ টাকা রিচার্জে গ্রাহক ২য় ওপরবর্তী ১ জিবি ডাটা বোনাস পাবেন, এবং প্রতি৩০ দিনের বিরতিতে বোনাস ডাটা বোনাসপাবেন।যেকোন ডাটা কার্ড/ইজি লোড ডাটা প্যাকরিচার্জে ১ জিবি বোনাস।মেয়াদ ৭ দিন (২৪ ঘন্টায়ই)।৩০ দিনে কেবল ১ বার।এভাবে গ্রাহক যেকোন ডাটা কার্ড/ইজি লোডডাটা প্যাক রিচার্জে ১ জিবি ডাটা বোনাস সুবিধাউপভোগ করবেন।৩০ দিনের বিরতিতে গ্রাহক সর্বোচ্চ ১২ বার ডাটাসুবিধা পাবেন। এটি শুরু হবে ১ম বার ২৯ টাকা/১০০ টাকারিচার্জ থেকে (রিচার্জে ১ম ১ জিবি ডাটা + ডাটাকার্ড/ইজি লোড ডাটা প্যাক ক্রয়ে পরবর্তী ১১বার ডাটা বোনাস)।গ্রাহক কোন মাসের ডাটা বোনাস সুবিধা না নিলেতিনি পুরো ১২ মাসের ডাটা সুবিধা পাবেননা; কিন্তুপরবর্তী বিরতির সুবিধা পাবেন।অন্যান্য তথ্য:গ্রাহক এই অফারটির উপযুক্ত কিনাসেটি যাচাই করতে যেকোন রবি নম্বর থেকেফ্রি এসএমএস পাঠাতে পারবেন। A018XXXXXXXXলিখে ৮০৫০ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়ে কিংবা*৮০৫০# ডায়াল করে পরবর্তী নির্দেশনা অনুসরণকরে নম্বরটি চাপতে হবে।পরবর্তী নোটিস না দেওয়া পর্যন্ত অফারটি চালুথাকবে।সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে রবিযেকোন সময়ে অফারটি বন্ধ করতে কিংবাকোন শর্তাদি সংযোজন বা বিয়োজন করতেপারবে।** সকল ট্যারিফ/অফারের উপর ৫% সম্পূরকশুল্ক(এসডি), ১৫% ভ্যাট ও ১% সারচার্জ প্রযোজ্যহবে।আল্লাহ হাফেজ
Share:

Sunday, October 22, 2017

Caller Tunee Code Tomay by Shawon Gaanwala

এই গানটি আপনার মোবাইলে সেট করতে পারেন নিচে কোড দেয়া হল:WELCOME TUNE CODE:GP, AIRTEL, TELETALK, ROBI : 6689290BANGLA LINK : 5743801গ্রামীনফোনের গ্রাহকরা এই গানটি ওয়েলকামটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে WT লিখে স্পেস দিয়ে 6689290 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারেরবির গ্রাহকরা এই গানটি গুনগুন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে GET লিখে স্পেস দিয়ে5 6689290 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারেবাংলালিংক গ্রাহকরা এই গানটি আমারটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে down লিখে স্পেস না দিয়ে 5743656 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারেএয়ারটেল গ্রাহকরা এই গানটি কলারটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে CT লিখে স্পেস দিয়ে 5743801 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে
Share:

Welcome Tune Code Priya Toke Chara by Nayan Khan

গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখেপাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে।
Share:

Welcome Tune Code Rascal by Aronno Akon

গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখেপাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে।
Share:

Saturday, October 21, 2017

Welcome Tune Code Tor Valobasha by Masum & Mita Mollik

গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখেপাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে।
Share:

Welcome Tune Code Aaj Ki Bristhi Hobey by Tina & Raghab

Follow Caller Tune/Welcome Tune Setup Process…Grameen Phone: Type : WT space Code 4178278 Send to 4000.Robi: Type : GET space Code 4178278 Send to 8466 .Airtel: Type : CT space Code 4178278 Send to 3123.Teletalk: TT space Code 4178278 Send to5000.
Share:

Friday, October 20, 2017

Tai Tomar Kheyal Lyrics-Boro Chele – Apurba, Mehjabin

Drama: Boro CheleSong: Tai Tomar KheyalSinger: Miftah ZamanTune & Music: Sajid SarkerLyric: Shomeswar OliCast: Apurba & MehjabinDirector: Mizanur Rahman AryanLabel: Cd ChoiceTai Tomar Kheyal Lyrics :এই ঠুনকো জীবনে ,তুমি কাচের দেয়াল ,এক আধটু কারনে যদি হউ বেসামাল ।মনে তাই তোমার খেয়াল ,মনে তাই তোমার খেয়াল ।আমি কোন মুখোশ পড়িনি ,আমি কিছু আড়াল করি নি ।আমি শুধু ভালোবেসেছি,প্রেমের বাজি ধরিনি ।আজ স্বপ্ন বাঁধনে আমি তোমার হলাম ,ঘুম স্বপ্ন যাপনে দিন রাত্রি সাজালাম ।মনে হয় তোমায় পেলাম ,মনে হয় তোমায় পেলাম ।আমি কোন মুখোশ পড়িনি ,আমি কিছু আড়াল করি নি ।আমি শুধু ভালোবেসেছি,প্রেমের বাজি ধরিনি । – [ ২ বার ]হয়তো তাঁরার দেশে ,হয়তো মেঘের শেষে ,আলো জ্বলে আলো নেভে ,তোমার কথা ভেবে ।মনে তাই তোমার খেয়াল ,মনে তাই তোমার খেয়াল ।আমি কোন মুখোশ পড়িনি ,আমি কিছু আড়াল করি নি ।আমি শুধু ভালোবেসেছি,প্রেমের বাজি ধরিনি ।এই ঠুনকো জীবনে ,তুমি কাচের দেয়াল ,এক আধটু কারনে যদি হউ বেসামাল ।মনে তাই তোমার খেয়াল ,মনে তাই তোমার খেয়াল ।আমি কোন মুখোশ পড়িনি ,আমি কিছু আড়াল করি নি ।আমি শুধু ভালোবেসেছি,প্রেমের বাজি ধরিনি । – [ ২ বার ]
Share:

Moner Bandhan (মনের বাধন) Shariar Bandhan & Adhora mon Tune Code

GP : Type WT-space- 6876071 and send to 4000Robi : Type GET-space- 6876071 and send to 8466Airtel: Type CT-space- 6876071 and send to 3123Teletalk : Type TT-space- 6876071 and send to 5000Banglalink : Type down 5974249 and send to 2222
Share:

টিউন কোড।Moner Majhe by Arfin Rumey & Noumi

Song : Moner MajheSinger : Arfin Rumey & NoumiLyric : Arfin RumeyTune : Arfin RumeyMusic : Arfin RumeyAlbum : Porojonomএই গানটি আপনার মোবাইলে সেট করতে পারেন নিচে কোড দেয়া হল:WELCOME TUNE CODE:GP : 6260165ROBI : 1809964AIRTEL : 3141304TELETALK :BANGLA LINK : 5452167গ্রামীনফোনের গ্রাহকরা এই গানটি ওয়েলকামটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে WT লিখে স্পেস দিয়ে 6260165 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারেরবির গ্রাহকরা এই গানটি গুনগুন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে GET লিখে স্পেস দিয়ে5 1809964 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারেবাংলালিংক গ্রাহকরা এই গানটি আমারটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে down লিখে স্পেস না দিয়ে 5452167 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারেএয়ারটেল গ্রাহকরা এই গানটি কলারটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে CT লিখে স্পেস দিয়ে 3141304 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে
Share:

Tune Code all sim. Mon Re By F.A.Sumon & Tanzin Mithila

Grameen Phone: Type : WT space Code 6666190 Send to 4000.Robi: Type : GET space Code 6666190 Send to 8466 .Airtel: Type : CT space Code 6666190 Send to 3123.Teletalk: TT space Code 6666190 Send to5000.Banglalink: Type : downCode 5684571 Send to 2222.
Share:

Tune Code List. Moner Shohor (মনের শহর) by Eleyas Hossain

Song : Moner ShohorSinger : Eleyas HossainLyric : Rakib Hasan RahulTune & Music : Eleyas HossainAlbum : Valo AchhisStream and download the original song from GP Music :Follow Caller Tune/Wellcome Tune SetupProccess…Grameenphone : Type : WT space 5239372 Send to 4000.Robi : Type : GET space 5239372 Send to 8466 .Airtel : Type : CT space 5239372 Send to 3123.Teletalk : TT space 5239372 Send to 5000.Banglalink : Type : down573146 Send to 2222.
Share:

Welcome Tune Code. Tomay Vebeby Shahid

Caller Tune Code :GP,Robi,Airtel & Teletalk- 6682770Banglalink- 5297751Lyric :তোমায় ভেবে কাটে প্রহরকাটে আমার দিন ক্ষণতুমি ছাড়া কোনো কিছুইবোঝেনা অবুঝ মনজীবনতো একটাই একটু মনএ মনে শুধু থাকো সারাক্ষনইচ্ছে যদি হয় গো তোমারআমার আকাশে নিও ঠাঁইমেঘলা আকাশ আজ যেনতোমার দখলে পুরোটাইস্বপ্ন গুলো তোমার নামেউড়িয়ে দিলাম হাওয়ায়চাইলে তুমি মিলিয়ে নিওতোমারি চাওয়া পাওয়ায়গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখেপাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে।
Share:

Robi, BL, Airtel, Gp, TeleTalk, Welcome Tune Code, Tumi Ki Amay by Rakib Musabbir & Era

Grameen Phone: Type : WT space Code 6977215 Send to 4000.Robi: Type : GET space Code 6977215 Send to 8466 .Airtel: Type : CT space Code 6977215 Send to 3123.Teletalk: TT space Code 6977215 Send to5000.Banglalink: Type : downCode 6977215 Send to 2222
Share:

Rong makhaiya amay keno, Harijan ( হরিজন ) Robi, BL, Airtel, Gp, TeleTalk, Welcome Tune Code,

# Rong makhaiya amay keno – MomtazGP – WT(space) 7076991 & send to 4000Airtel – CT(space) 7076991 & send to 3123Robi – get(space) 7076991 & send to 8466TeleTalk -TT(space) 7076991 & send to 5000Banglalink – down 7076991 & send to 2222##Tumi amar Sri krishno – Andrew Kishor & Konok ChapaGP – WT(space) 7076992 & send to 4000Airtel – CT(space) 7076992 & send to 3123Robi – get(space) 7076992 & send to 8466TeleTalk – TT(space) 7076992 & send to 5000Banglalink – down 7076992 & send to 2222## Ami Tomari Chorone – JhankerGP – WT(space) 7076989 & send to 4000Airtel – CT(space) 7076989 & send to 3123Robi – get(space) 7076989 & send to 8466TeleTalk -TT(space) 7076989 & send to 5000Banglalink – down 7076989 & send to 2222##Mohuyar Neshate – BadhonGP – WT(space) 7076990 & send to 4000Airtel – CT(space) 7076990 & send to 3123Robi – get(space) 7076990 & send to 8466TeleTalk -TT(space) 7076990 & send to 5000Banglalink – down 7076990 & send to 2222
Share:

Robi, BL, Airtel, Gp, TeleTalk, Welcome Tune Code, song বৃষ্টি এলে Tahsan

গ্রামীনফোনের গ্রাহকরা এই গানটি ওয়েলকামটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে WT লিখে স্পেস দিয়ে 6891649 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারেরবির গ্রাহকরা এই গানটি গুনগুন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে GET লিখে স্পেস দিয়ে5 6891649 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারেবাংলালিংক গ্রাহকরা এই গানটি আমারটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে down লিখে স্পেস না দিয়ে 6891649 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারেএয়ারটেল গ্রাহকরা এই গানটি কলারটিউন সেট করতে মেসেজ অপশনে গিয়ে CT লিখে স্পেস দিয়ে 6891649 টাইপ করে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে
Share:

Robi, BL, Airtel, Gp, TeleTalk, Welcome Tune Code, Tui Amar Jibon by Pagol Hasan

Singer : Pagol HasanLyric & Tune : Pagol HasanMusic : Rajib HossainCaller Tune Code :GP,Robi,Airtel & Teletalk- 6663690Banglalink- 5297585গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখেপাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে
Share:

Robi, BL, Airtel, Gp, TeleTalk, Welcome Tune Code, মিথ্যে আশা Mitthe Asha by Abir Ahnaf& Happy Afreen

GP : Type WT-space-6842971 and send to4000Robi : Type GET-space-6842971 and sendto 8466Airtel: Type CT-space-6842971 and send to 3123Teletalk : Type TT-space-6842971 and send to 5000Banglalink : Type down 5974209 and send to 2222
Share:

Code Tune. বাবা by SM Rodro

গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখেপাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে।
Share:

Tune Code Bangla, Sunnota (শূন্যতা) by Akassh Sen

Grameenphone : Type : WT space 6859111 Send to 4000.Robi : Type : GET space 6859111 Send to 8466 .Airtel : Type : CT space 6859111 Send to 3123.Teletalk : TT space 6859111 Send to 5000.
Share:

তুমি কেন এমন হলে খুব সহজে বদলে গেলে বুকের পাজর ভেঙ্গে তুমি কেন হারালে। ওয়েলকাম টিউন কোড।

Lyric :তুমি কেন এমন হলেখুব সহজে বদলে গেলেবুকের পাজর ভেঙ্গে তুমিকেন হারালেভালোবাসার মায়াডোরেরেখেছিলাম আপন করেবুকের আসমান ভেঙ্গে তুমিকেন হারালেও প্রিয়ারে ও প্রিয়ারেআজ ও ভালোবাসি কত তোমারেও প্রিয়ারে ও প্রিয়ারেআজো ভুলতে পারিনি তোমারেদিবানিশি খুজি তোমায়কোথায় গেলে পাইদু চোখ দিয়ে অশ্রু ঝড়েকি করে থামাইআজো আমি বেচে আছিতোমারি আশায়স্বপ্নগুলো খুজে ফিরেশুধু স্মৃতির পাতায়গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখেপাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে।
Share:

দাড়ের ময়না Fakir Alamgir ওয়েলকাম টিউন কোড।

গানটি গ্রামীনফোন গ্রাহকরা ওয়েলকাম টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েWT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখেপাঠিয়ে দিন 4000 নাম্বারে।গানটি রবি গ্রাহকরা গুনগুন হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েGET লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 8466 নাম্বারে।গানটি এয়ারটেল গ্রাহকরা কলার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েCT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 3123 নাম্বারে।গানটি টেলিটক গ্রাহকরা টেলি টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েTT লিখে একটি স্পেস দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে।গানটি বাংলালিংক গ্রাহকরা আমার টিউনস্ হিসেবে সেট করতে চাইলে মেসেজ অপশনে গিয়েdown লিখে কোন স্পেস না দিয়ে CODE লিখে পাঠিয়ে দিন 2222 নাম্বারে।
Share:

পুরুষাঙ্গ বড় হলে যৌন মিলণের ক্ষেত্রে করণীয় কি?

প্রশ্ন : আমার ৯ দিন আগে বিয়েহয়েছে। বাট আমার স্বামী এরপুরুষাঙ্গ বড় আকৃতির। আমার মনেহয় পুরুষাঙ্গের আকৃতি ৭-৮ ইঞ্চিহবে। এতো বড় পুরুষাঙ্গ আমি নিতেপারতেছি না।তা সত্ত্বেও আমারস্বামী জোড়াজুড়ি করে কয়েকমিলন করেছে। মিলনের সময় আমারকোনো হুঁশ ছিলনা। আর এটাকাউকে বলতেও পারছিনা। এখনআমি কি করতে পারি। একটা উপায়বলে দিলে ধন্য হবো।প্রথমে মিলনের ক্ষেত্রে সকলপুরুষেরই খেয়াল রাখা উচিৎ যে,রতিক্রিয়া যেন তাঁর সঙ্গিনী কষ্টনা পায়। এর জন্য পুরুষদের কর্তব্যহচ্ছে খুব সতর্কতার সাথে পুরুষাঙ্গসঞ্চালন করা। পুরুষাঙ্গেরস্বাভাবিক আকার হচ্ছে ৫ বা ৬ইঞ্চি। এর চেয়ে ছোট পুরুষাঙ্গ হলেতাতে কোনো সমস্যা নেই বরংএতে নারীর কোনো কষ্ট হয় না।কিন্তু পুরুষাঙ্গ যদি বড় হয় তাহলেএক্ষেত্রে নারীর কষ্ট হয়রতিক্রিয়া করতে। স্বাভাবিকপুরুষাঙ্গের দ্বারাও কিছু দিন কষ্টহয় পরে নারীর যোনিনালীপ্রসরতা বৃদ্ধি পেলে সেটা আরথাকে না। কিন্তু পুরুষাঙ্গ যদি বড়হয় সেক্ষেত্রে রতিক্রিয়া করারসময় স্বামীকে অবশ্যই স্ত্রীরপ্রতি খেয়াল রাখতে হবে।এক্ষেত্রে স্বামীর করণীয় হচ্ছেতাঁর নারীকে উত্তেজিত করেনেওয়া।স্ত্রীর যখন যথেষ্ঠ উত্তেজিত হবেতখন তাঁর যোনি পথে এক ধরণেরপিচ্ছিল পানি বের হবে যাকেযৌন রস বলে। এই যৌন রস বের হয়েস্ত্রীর যোনিকে পিচ্ছিল করেদেয়। যার কারণে লিঙ্গ অনায়াসেযোনি পথে আসা যাওয়া করতেপারে। সেক্ষেত্রে নারীর কষ্ট হয়না। প্রথম মিলন কালে স্ত্রীকেভালো করে উত্তেজিত করে নিলেপ্রথম মিলনে কষ্ট হলে স্ত্রীর কমবোধ পায়। কেননা সে উত্তেজনাবশে থাকে। যোনিতে পুরুষাঙ্গপ্রবেশের পূর্বে লিঙ্গেরঅগ্রভাগে হালকা থু থু লাগালেপিচ্ছিলতা আসবে। আবার জেলওব্যবহার করা যেতে পারে।বাজারে কসমেটিক্স দোকানেপাওয়া যায়। যাদের পুরুষাঙ্গ বড়সেসব স্বামীদের করণীয় হচ্ছেমিলনের পূর্বে স্ত্রীকে তোভালভাবে উত্তেজিত করবেই এবংতাঁর সাথে স্ত্রীর যোনি লিঙ্গআস্তে ধীরে প্রবেশ করাবে যাতেসে কম ব্যথা অনুভব করে। এক্ষেত্রেস্বামী স্ত্রীর যোনিতে লিঙ্গ ৩ইঞ্চি অথবা স্ত্রী যতটুকু সায় দেয়ততটুকু পুরুষাঙ্গ প্রবেশ করিয়েসঙ্গম চালিয়ে যেতে থাকবে।এক্ষেত্রে কিছু আসন গ্রহণ করাযেতে, যেমন স্ত্রী চিৎ হয়ে শুয়েথাকবে, আর স্বামী হাটু গেড়েবসে যোনিতে লিঙ্গ প্রবেশকরিয়ে সঙ্গম চালিয়ে যেতেথাকবে। অথবা স্ত্রী পাছা উপরেরদিকে দিয়ে খাটে শুয়ে থাকবেএবং স্বামী হাটু গেড়ে বসেযোনিতে পুরুষাঙ্গ প্রবেশ করিয়েসঙ্গম চালিয়ে যেতে থাকবে।এখানে আরেকটি আসন আছে,স্বামী নিচে শুয়ে থাকবে এবংস্ত্রী উপরে উঠে বসে নিজেরসুবিধা মতো সঙ্গম চালিয়ে যেতেথাকবে।স্বামীকে অবশ্যই স্ত্রীর যোনিচাহিদার উপর গুরুত্ব দিতে হবে ,স্ত্রীর যাতে তাঁর দ্বারা কোনোকষ্ট না পায় সেটাও স্বামীকেখেয়াল করতে হবে। যে আসনেইসঙ্গম করেন না কেনো স্বামীকেসঙ্গম চলা কালে স্ত্রীর মতামতজানতে হবে, তাঁর কাছে কেমনলাগতেছে, সে ব্যথা অনুভবকরতেছে কিনা । স্বামীরবীর্যপাতের পূর্বে স্ত্রীর কাছেজানতে হবে তাঁর খায়েশ মিটছেকিনা। যদি স্ত্রীর খায়েশ নামেটেই স্বামীর বীর্যপাত হয়েযায় তাহলে স্ত্রীরদের মনেবিষন্নতা তৈরি হয়, তাঁর মেজাজহয়ে যায় খিটখেটে, মনে একধরণেরঅশান্তি অনুভব করে। যার কারণেসংসারে অশান্তি নেমে আছে।আর এটা হয় স্বামীদের যৌনমিলনে স্ত্রীদের প্রতিঅসদাচারণ করার ফলে। যেমন, এইআপুর প্রতিও অসদাচারণ হচ্ছে।প্রত্যেক স্বামী কে বুঝতে হবেআমি যেরকম মানুষ, আমার স্ত্রীওএকজন মানুষ। প্রত্যেক স্বামীকেএটা বুঝতে হবে, আমি আমারস্ত্রীর সাথে যা করতেছি, আমিযদি আমার স্ত্রীর জায়গায় হতামএবং আমার স্ত্রী যদি আমারজায়গায় হতো, তাহলে সে আমারপ্রতি এরকম অসদাচারণ করলেআমার কাছে কেমন লাগতো?নিশ্চয় খারাপ লাগতো। স্বামীযদি স্ত্রীর প্রতি অসদাচরণ করেতাহলে স্ত্রীর মনে স্বামীর প্রতিভালবাসা মায়া মহব্বত বাড়ে নাবরং দিনে দিনে তা কমে যায়।যার কারনে স্ত্রী পরপুরুষের প্রতিআকৃষ্ট হতে পারে। আর এজন্যইমহানবী (সা.) বলেছেন, স্বামীকেমন ভালো তাঁর স্ত্রীর ভালোবলতে পারবে। স্বামী যদি সারাদুনিয়ার মানুষের সাথেফেরেশতার মত আচরণ করে ঘরেএসে স্ত্রীর প্রতি অসদাচারণ করেতাহলে এ ভালো আচরণেরআল্লাহর কাছে দাম নেই। সারাদুনিয়ার মানুষ যদি স্বামীকেখারাপ বলে, আর স্ত্রী যদিস্বামীকে ভালো বলে, তা হলেআল্লাহ বলবেন আমি তোর স্ত্রীরকথাই গ্রহণ করে নিলাম। স্ত্রীযদি বলে আমার স্বামী ভালোছিল, আল্লাহ বলবেন যা আমিতোকে জান্নাত দান করলাম এবংস্বামী যদি বলে আমার স্ত্রীভালো ছিল তাহলে আল্লাহবলবেন যা আমি তোকে জান্নাতদান করলাম। এজন্য মহানবী (সা.)বলেছেন, সে ব্যক্তি সর্বোত্তমযার দ্বারা তাঁর পরিবার কষ্ট পায়না। প্রত্যেক পুরুষকেই একজন আদর্শস্বামী হওয়ার প্রয়োজন। এবংপ্রত্যেক নারীকেই একজন আদর্শরমণী হওয়ার প্রয়োজন। আরোপড়তে পারেন স্বামী-স্ত্রীর সুন্দরজীবন।
Share:

মোটা মেয়েদের সাথে তৃপ্তি সহকারে যৌন মিলন করার উপায়

পাশাপাশি যৌন সঙ্গমের ঠিককৌশল সম্পর্কে অজ্ঞতা, সঙ্গমেরপুর্বে সঠিক ভাবে উত্তেজিতকরতে না জানা, যৌন উত্তেজকস্থান সমূহ না চেনা ইত্যাদিবিভিন্ন কারণে সঙ্গমের চূড়ান্তসুখ লাভ করা সম্ভব হয় না।আসলেমোটা লোকদের সম্পর্কেসামাজিক দৃষ্টি ভঙ্গিঅনেকাংশেই নেতিবাচক।ডায়েটিং করা বা দীর্ঘদিন ধরেআংশিক উপোস করার কারণেমোটা লোকদের যৌন বাসনা নষ্টহয়ে যেতে পারে।পাশাপাশিযেসব মহিলাদের ওজ কমতে শুরুকরে, তাদের স্বাভাবিক মাসিকচক্রও অস্বাভাবিক হয়ে যেতেপারে।মোটা বা মেদ বহুল মহিলারাসাধারণত এমন ধারণা পোষন করেথাকে যে, তাদের পক্ষে কোনোপুরুষকে যৌন সুখ দেয়া সম্ভব নয় বাতাদেরকে কেউ পছন্দ করেনা।ফলেতাদের মধ্যে আত্মবিশ্বাসেরঅভাব দেখা দেয়।এই ধরনেরআত্মবিশ্বাস হীনতা তাদের যৌনজীবনকে অধিকাংশ ক্ষেত্রেবাধাগ্রস্ত করে।মোটা পুরুষদের বেলায়ও এধরনেরসমস্যা দেখা যায়।প্রত্যাখ্যানহবার ভয়, যৌনসঙ্গম করতে অক্ষম,বা সঙ্গিণীকে যৌন তৃপ্তিদানেঅক্ষম বা তাদেরকে কেউ পছন্দকরেনা এমন ধরনের ধারণাতাদেরকে যৌন সঙ্গম থেকে বিরতরাখে।এ ধরনের মানসিক দুশ্চিন্তওসামাজিক দৃষ্টভঙ্গি বা সুযোগেরঅভাব ইত্যাদি বিভিন্ন কারণেদীর্ঘদিন ধরে যৌনসঙ্গম থেকেবিরত থাকলে তারা যৌনসঙ্গমেঅক্ষম হয়ে যেতে পারে।আসলেএটি বর্তমানে একটি সামাজিকসমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে এবংএবিষয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশেঅনেক গবেষণাও হয়েছে।গবেষণায়কিছু ফলাফল উল্লেখ করা হলো-মোটা মানুষের বেলায় শারীরিকযৌন চাহিদা স্বাভাবিক পর্যায়েথাকে।তবে সঙ্গমের বেলায়অতিরিক্ত মোটা হওয়ার কারণেকিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে।বিবাহিত জীবনেও যৌনসঙ্গমইমোটা লোকদের আনন্দ লাভেরগুরুত্বপূর্ণ উপায়। অবিবাহিতমোটা লোকদের বেলায়ও দেখাযায় তাদের স্বাভাবিকযৌনবাসনা রয়েছে।তবে মানসিকদুশ্চিন্তার কারণে অর্থাৎ তাদেরসাথে কেউ যৌনসঙ্গম করতে পছন্দকরেনাএমন ধারনা তাদেরযৌনজীবনকে বাধারস্ত করে।প্রয়োজনীয় কিছু যৌন আসনেরকৌশল উল্লেখ করা হলো- পুরুষরধান আসন : এই আসনটিকেসাধারণত মিশনারি আন বলা হয়েথাকে।সাধারণত মহিলাটি তারপুরুষসঙ্গীর চেয়ে মোটা হলেএধরনের আসন বেশি কার্যকর হয়।এক্ষেত্রে মহিলাটি চিৎহয়ে শুয়েদুই পা কটির দিকে বাঁকিয়েরাখবে এবং হাঁটু সম্পূর্ণ বাঁকিয়েদুই উরু যতটা সম্ভব ফাঁক করে ধরবে।এতে করে তার যোনি মুখ সম্পূর্ণভাবে সঙ্গম উপযোগী হবে।তারভুড়ি খুব বড় হলে এসময় সে দুইহাতে যোনি মুখ থেকে তা ওপরেরদিকে টেনে ধরতে পারে।অন্তত পক্ষে পুরুষ সঙ্গীটি তার উরুরমধ্যে সঙ্গম উপযোগী আসন নেয়ারআগ পর্যন্ত এমনটি করা যেতেপারে।এতেও যদি সঙ্গম করা কষ্টকরহয় তবে মহিলাটি একটি বাএকাধিক বালিশ তার নিতম্ব বাপাছার নিচে রাখতে পারে।এক্ষেত্রে সঙ্গম করা সহজতর হয়কারণ এতে করে যোনি মুখ ওপরেউঠে আসে।নিতম্বের নিচেএকাধিক বালিশ স্থাপন করলে শুধুসঙ্গমকরাই সহজ হয় না বরংসঙ্গমের ক্ষেত্রে ভিন্নতাও আসে।সঙ্গম কালে পা দুটি বিভিন্নউচ্চতায় উঠালে সঙ্গমের ভিন্নরকম স্বাদ পাওয়া যায়।যৌন বিশেষজ্ঞরা বলে থাকেনমাত্র তিন ইঞ্চি পরিমাণ উচুনিকরলে যৌনসঙ্গমের অনেকপরিবর্তন আসতে পারে।এই আসনটিকে মেইল আপারেইট আসনও বলাযেতে পারে।প্রয়োজন মনে করলেসঙ্গমের সময় পুরুষটি তার নিতম্বেরওপর বসে নিতে পারে।এক্ষেত্রেদুই হাত দিয়ে শরীরের উত্তেজকঅংশ গুলোতে শৃঙ্গার করতেপারে।মোটা মেয়েদের সাথেকিভাবে যৌন মিলনকরলে আনন্দ বেশিপাওয়া যায়?সিম আসন : এই আসনটিও পেছন দিকদিয়ে যৌন সঙ্গম করার মত একধরনের আসন।এক্ষেত্রে মহিলাটিএকদিকে ফিরে শুয়ে হাটু বাকিয়েওপরে পা যতটা সম্ভব মাথারদিকে টেনে তুলবে এবং নিচের পাসোজা থাকবে। এতে করে যোনিমুখ ওপর দিয়ে বা পেছন দিয়েসঙ্গমে উপযোগী হবে।এসময় পুরুষটিতার দুটি পা মহিলাটির নিচেরপায়ের দুদিকে রেখে হাটু গেড়েবসে পেছন দিকে দিয়ে যৌনসঙ্গমকরতে পারে।প্রয়োজন হলে পুরুষটিতার হাটুর নিচে বালিশ দিয়েনিতে পারে।মহিলাটি পুরুষটির চেয়ে অধিকমোটা হলে এধরনের আসনেযৌনসঙ্গম করা যেতে পারে।এআসনটি একটু জটিল তবে চেষ্টাকরলে বা চর্চা করলে এই আসনেসঙ্গম করা যেতে পারে।এক্স-আসন : এটি অনেকটা টি-বর্গীয় আসনের মতই।এক্ষেত্রেমহিলাটি চিৎ হয়ে শুয়ে পাদুটিবাকিয়ে উরুদ্বয় যতটা সম্ভব ফাককরে ধরবে।এই ময় যোনি পথেপুরুষাঙ্গ প্রবেশ করাবার পরমহিলাটি তার পা দুটি একসাথেকরবে এবং পুরুষটির শরীরে তখন ৪৫ডিগ্রি কোণ সৃষ্টি করবে।এতে করেদুই জনের অবস্থান ইংরেজিবর্ণমালা এক্স-এর আকারের হবে।তবে এটি করার সময় মহিলাটিরযোনির পেশি এমন ভাবে চেপেরাখা প্রয়োজন যাতে পুরুষাঙ্গ বেরহয়ে যায়।এই আসনে পরস্পরের ভুড়িসঙ্গমের বেলায় বাধা সৃষ্টিকরেনা।ওরাল সেক্স : ওরাল সেক্স উপভোগকরতে জানলে অত্যন্ত আনন্দদায়কহতে পারে।সাধারণত মোটামহিলারা ওরাল সেক্সের বেলায়বেশ পটু হয়ে থাকে।তবে যেজিনিসটি মনে রাখা প্রয়োজন তাহলো- ওরাল সেক্স আসলে একতরফাকিছু নয়।মুখ মেহনের মাধ্যমেযৌনসঙ্গী দুজনই পরস্পরকে আনন্দদিতে পারে।যৌনবিশেষজ্ঞরা ৬৯ পদ্ধতিরওরাল সেক্সের পরামর্শ দিয়েথাকেন।মুখ মেহন বা ওরাল সেক্সযৌনসঙ্গমের অংশও বটে।এরমাধ্যমে যৌন সঙ্গমকে আরোঅধিক আনন্দময় করা যেতে পারে।সঙ্গম বিহীন যৌনতা : যোনি পথেপুরুষাঙ্গ প্রবেশ না করিয়েও অনেকসময় যৌন আনন্দ লাভ করা যায়।যেমন- যোনি পথে কৌশলে আঙ্গুলপ্রবেশ করিয়ে মহিলাটিকে যৌনআনন্দ দেয়া যায় যৌন উত্তেজকআলোচনা, শৃঙ্গার, হাসিঠাট্টা,স্পর্শকরা, উত্তেজক বই পড়া বাউত্তেজক ছবি দেখা ইত্যাদিবিভিন্ন ভাবে যৌন আনন্দ লাভকরা যায়। মনে রাখা প্রয়োজনপরস্পর খুব কাছাকাছি থাকারফলে সঙ্গমের আনন্দ লাভ না করতেপারলেও অন্তত ভালো বাসারআনন্দ পাওয়া যায়।
Share:

সম্ভোগের আগে স্বামীর কিছু গুরুত্বপূর্ণ কর্তৃব্য

সম্ভোগ হল আসলে একটি জটিলকলা। উপযুক্ত প্রশিক্ষণ এবংঅভ্যাসের ফলে নারী-পুরুষ এইকলায় দক্ষ হয়ে ওঠে। সম্ভোগক্রিয়া সাধারণভাবে এক রকমেরহয়। কিন্তু পরিস্থিতি অনুসারেলোকজন তাদের রুচি অনুযায়ীনানারকম পরিবর্তন করে নেয়।প্রত্যেক নারী-পুরুষের সম্ভোগেরএক বিশেষ ক্ষমতা পেতে হয়। এটিনিজের পরিস্থিতিকেভালোভাবে বিচার করার পরনিজের অনুভবের দ্বারা প্রাপ্তহয়। সম্ভোগের ফলে দুটি অপরিচিতমন ও দেহ অত্যন্ত কাছে চলেআসে। এই ক্রিয়ার ফলেইবিবাহিত জীবনে প্রেমের সঞ্চারঘটে। তাই জিবনের এই গুরুত্বপূর্ণঅধ্যায়ে প্রবেশ করার আগেপ্রত্যেক নর-নারীকে সম্ভোগেরকারুকাজ সম্বন্ধে ভালোভাবেজ্ঞান অর্জন করতে হয়। কেননাপ্রথম সম্ভোগের সাফল্যের ওপরেইদাম্পত্য জীবনের সুখ ও আনন্দনির্ভর করে। সামান্য ভুল বাঅজ্ঞানতার ফলে সমস্ত জীবনতিক্ততায় ভরে উঠতে পারেসম্ভোগের আগেস্বামীর কিছু গুরুত্বপূর্ণকর্তৃব্যসম্ভোগের আগে স্বামীর কর্তৃব্য১। সহবাসের আগে পতির কর্তব্যহলো, পত্নীকে প্রিয়তমা জ্ঞানেবা সত্যিকারের ধর্মপত্নী জ্ঞানেনিজের তৃপ্তির সঙ্গে সঙ্গে তারওদৈহিক ও মানসিক তৃপ্তি বিধানকরা। নিজের কামনা পরিতৃপ্তকরাই সম্ভোগের একমাত্র লক্ষ্যহওয়া উচিত নয়।২। যৌন মিলনে কোন প্রকার বলপ্রয়োগ করা আদৌ বাঞ্ছনীয় নয়।একথা মনে রাখতে হবে।৩। চুম্বন, আলিঙ্গন, নিপীড়নইত্যাদি নানাভাবে স্ত্রীর মনেপূর্ণ কামাব জাগিয়ে তারপর তারসঙ্গে সহবাসে রত হওয়া প্রতিটিপুরুষের কর্তব্য।৪। নারী ধীরে ধীরে আত্নসমর্পণনা করা পর্যন্ত তার সঙ্গে কখনওসহবাসে লিপ্ত হওয়া উচিত নয়।৫। নারী কখনও নিজের যৌনউত্তেজনাকে মুখে প্রকাশ করেনা। তবে সেটা অনেকটা লক্ষণদেখে বুঝে নিতে হয়।৬। নারীর কর্তৃব্য সর্বদা পতিরপ্রতি শ্রদ্ধা ও ভালবাসার ভাবফুটিয়ে তোলা।৭। পতিকে ঘৃণা করা, তাকে নানাকু-কথা ইত্যাদি বলা কখনই উচিতনয়। সহবাসের অনিচ্ছা থাকলে তাতাকে বুঝিয়ে বলা উচিত। ঘৃণা বাবিরক্তিসূচক তিরস্কার করা কখনওউচিত নয়। এতে পতির মনে দুঃখ ওবিরক্তি জাগতে পারে।৮। সম্ভোগের আগে নারীর কর্তৃব্যস্বামীর চুম্বন, দংশন ওআলিঙ্গনের প্রতিউত্তর দেওয়া।৯। সম্ভোগের সময় নারীর পূর্ণকামভাব জাগলে পতিকে কৌশলেতা বুঝিয়ে দেওয়া উচিত।১০। নারীর উত্তেজনা ধীরে ধীরেআসে-আবার তা ধীরে ধীরে তৃপ্তহয়। পুরুষের উত্তেজনা আসেঅকস্মাৎ আবার তা অকস্মাৎ শেষহয়। তাই নারীর পূর্ণ কামভাব নাজাগিয়ে সঙ্গমে মিলিত হলেনারী পূর্ণ তৃপ্তি পেতে পারে না।এরকম করা রিধিবিরুদ্ধৃ। এতে নারীপূর্ণ তৃপ্তি পায় না- এর জন্যে সেপর-পুরুষ পর্যন্ত গমন করতে পারে।দাম্পত্য জীবনে অনেক বিপর্যয় এরজন্যে আসতে পারে।সম্ভোগে স্ত্রীকে দ্রুত তৃপ্তিদেওয়ার উপায়১। গালে ঠোঁটে ঘন ঘন চুম্বন করা।২। স্ত্রীর ঊরুদেশ জোরে জোরেমৈথুনের আগে ঘর্ষণ করা।৩। সম্ভোগের আগে যোনিদেশ,ভগাঙ্কুর কামাদ্রি আলতো ভাবেঘর্ষণ করা।৪। ভগাঙ্কুর মর্দন।৫। মৈথুনকালে স্তন মর্দ্দন।মেয়েদের দুধ মর্দন এবং চোষারসঠিক কৌশল না জানলে জেনেনিন৬। সহাবাসের আগে যদিপুরুষাঙ্গের আগায় খুব সামান্যপরিমাণ কর্পূর লাগানো হয় তবেস্ত্রী দ্রুত তৃপ্তি লাভ ক’রেথাকে। তবে কর্পূর যেন বেশি নাহয়, তাতে স্ত্রী যোনি ও পুরুষাঙ্গজ্বলন অনুভূত হ’তে পারে।সহবাসের কাল১। মেয়েদের একটু ঘুমোবার পররাত্রির দ্বিতীয় প্রহর শ্রেষ্ঠমৈথুন সময়।২। দিনের বেলা সহবাস নিষিদ্ধ।৩। ভোরবেলা সহবাস শরীরেরপক্ষে ক্ষতিকর হ’তে পারে।৪। গুরু ভোজনের পর সঙ্গে সঙ্গেসহবাস নিষিদ্ধ।৫। ক্রুদ্ধ বা চিন্তিত মেজাজেস্ত্রী সহবাস উচিত নয়। প্রফুল্লমনে সহবাস উচিত।কোন ঋতু মৈথুনের পক্ষে কতটাউপযোগী তার বিচার করা হচ্ছে।ক। বসন্তকাল-৯০%।খ। শরৎকাল-৭০%।গ। বর্ষাকাল-৫০%।ঘ। হেমন্তকাল-৪০%।ঙ। গ্রীষ্মকাল-৩০%।চ। শীতকাল-২০%।সম্ভোগকালে প্রহরণ বা মৃদু প্রহারমৈথুনকালে মৃদু প্রহার-শৃঙ্গারওকামের একটি অঙ্গ হিসাবেস্বীকৃত হয়েছে।কথাটা শুনতে অনেকটা আশ্চার্য্যবোধ হয়, কিন্তু কামসূত্রে তারব্যাখ্যা প্রদত্ত হয়েছে।নারী কিছুটা উৎপীড়িত হ’তে চায়যৌন মিলনে-তাই মনোবিজ্ঞানস্বীকার করে যে, পুরুষ কিছুটাউৎপীড়ন করতে পারে নারীকে।কিন্তু প্রহরণ ঠিক শৃঙ্গার নয়-কারণমিলনের আগে এর প্রয়োজন নেই।পূর্ণ মিলনের সময় আনন্দ বৃদ্ধিরজন্যে পুরুষ ধীরে ধীরে নারী-দেহের কোমল অংশে মৃদু প্রহারকরতে পারে।পুরুষ অথ্যাচারী-মনোবিজ্ঞানেরমতে যে প্রহার করা হয় তাআনন্দের। তাই বলে এতে দু’জনেইযে আনন্দ পাবে এমন নয়। এটাদু’জনের মানসিক অবস্থার উপরনির্ভর করে।প্রহরণের মধ্যে আবার প্রকারভেদআছে-১। মুষ্টি প্রহার-হাত মুষ্টি বদ্ধ করেদেহের বিভিন্ন অংশে মৃদু প্রহরণ।২। চপেটাঘাত (হাত খুলে রেখেধীরে ধীরে।)৩। দু’টি অঙ্গুলির সাহায্যেপ্রহরণ।৪। প্রহরণ ও সংবহন মিশ্রিত করেপ্রহরণ।মর্দন বা সংবাহনযদিও মর্দন শৃঙ্গার কালে মাঝেমাঝে হয়- তবে এই মর্দন প্রকৃতশৃঙ্গার নয়। মর্দন বেশি হয়রতিকালে বা রতির পূর্বে।নারীদেরহর কোমল অংশে যেমনস্তন, নিতম্ব, ঊরুদ্বয় প্রভৃতির মর্দনহ’য়ে থাকে। রতিক্রিয়াকালেস্তন ও নিতম্ব মর্দন করেও পুরুষ ওনারী উভয়ে আনন্দ পায় বলেবাৎস্যায়ন বলেছেন।সম্ভোগের আগেউত্তেজিত নারীতবে যারা পছন্দ করেন তাঁরাই এটাকরবেন। যদি একজন বা দু’জনেইপছন্দ না করেন তবে এর প্রয়োজননেই। ঔপরিষ্ঠক বামুখমেহন মুখমেহন স্বাভাবিকমিলন হিসাবে বাৎস্যায়নস্বীকার করেন নি। স্বামী-স্ত্রীরমধ্যে এটি সর্বদা চলতে পারে না।তবু শাস্ত্রে এটি উল্লিখিতহয়েছে। শাস্ত্রে উল্লিখিত হবারঅর্থ অবশ্য এই নয় যে, এটি খুব ভালআসন বা এটি সম্মান পেয়েছে।শাস্ত্রে কেবল এটাকে একটিঅস্বাভাবিক মিলন বলেই এর নামউল্লিখিত হয়েছে।ভারতের কোন কোন জাতির মধ্যেঔপরিষ্ঠক স্বীকৃত ও বেশ প্রচলিত-কিন্তু তাই বলেই তাকে উচ্চ স্থানদেওয়া হয় না।মুখমেহন সব পণ্ডিতের মতেই ঘৃন্য-তাই এ বিষয়ে বেশি আলোচনাকরা হলো না।বাৎস্যায়ন বলেন নারী শুধু তিনটিশ্রেণীরই নয়-তাছাড়াও আছে আরএক শ্রেণী-তার নাম হলো নপুংষকশ্রেণী।এই নপুংষক শ্রেণীর যোনি ঠিকমতগঠিত নয়-তাই এদের সঙ্গে যৌনক্রিয়া সম্ভব নয়। এদের দ্বারাকেবল মুখমেহন করানো চলতেপারে।এই শ্রেণীর নপুংষক অনেক সময়অর্থের বিনিময়ে মুখমেহনে রাজীহয়।এই মুখমেহন আট প্রকার হ’য়ে থাক-১। নিমিত-এতে নপুংষক তারকরতলে পুরুষাঙ্গ ধরে আসে- আসে-তার ওষ্ঠাধারে ঘর্ষণ করে।২। পার্শ্ব-লিঙ্গ মুণ্ডের আবরণ খুলেআসে- আসে- মুখে প্রবেশ করানো।৩। বহিঃসংদংশন্তদাঁত ও ঠোঁটদিয়ে পুরুষাঙ্গের আবরণ উন্মোচন।৪। পুরুষাঙ্গ বারে বারে মুখেরভেতরে নেওয়া ও বের করা। বহুক্ষণএরূপ করা।৫। অন্তঃসংদংশন্তওষ্ঠাধর দিয়েচোষণ করা।৬। জিহ্বা দ্বারা চোষণ।৭। আম্রচোষণ-পুরুষাঙ্গ আম্রের মতচোষণ করা।৮। আকন্ঠীত-সম্সত পরুষাঙ্গ গিলেফেলার মত।মুখের মধ্যে সুরতের সঙ্গে সঙ্গেআলিঙ্গনাদিও চলতে পারে।অনেক নীচজাতীয়া নারীদেরদ্বারা এ কাজ করানো যেতেপারে।কামশাস্ত্রে মুখে সুরত নিষিদ্ধ।তবে অনেকে এটি পছন্দ করেন।-বাকোন রাবাঙ্গনা রাজী হলে তারদ্বারা এটি করান। কিন্তু অন্তঃপুরচারিনীদের এটি করা উচিত নয়।সহবাসের পরের কথাসহবাসের পরে দু’জনেরই উচিতকমপক্ষে এক পোয়া গরম দুধ, একরতিকেশন ও দুই তোলা মিশ্রিসংযোগে সেবন করা। সম্ভোগেকিছু শক্তির হ্রাস হ’তে পারে।এতে করে কিঞ্চিৎ পূরণ হয়।অন্যথায় সহবাস করা উচিত নহে।এই কারণেই মনীষীরা মাসানে-একবার রতিক্রিয়া ব্যবস্থা করেদেন। যাতে উপরোক্ত সামগ্রীরযোগাড় করতে গরীব বা মধ্যবিত্তশ্রেণীর লোকের পক্ষেও কষ্টকর নাহয়। পুষ্টিকর খাদ্য না খেলে পুরুষঅচিরেই শক্তিহীন হ’য়ে পড়ে ওতার কর্মশক্তি লোপ পায়।অত্যধিক মৈথুনের জন্য হজমশক্তিলোপ পায়। ফলে অম্ল, অজীর্ণপ্রভৃতি নানা প্রকার রোগ দেখাদেয়। এই সমস্ত রোগের হাত থেকেনিশ্চিত ভাবে নিষকৃতির জন্যমৈথুনের পর দুগ্ধ পানঅত্যাবশ্যাক। অবস্থায় সম্ভব হলেনিম্নের টোটকাগুলি ব্যবহার করলেভয়ের কারণ থাকবে না।(১) বাদাম দুই তোলা ভালভাবেবেটে নিয়ে তা মিশ্রি সংযোগে
Share:

নারীদের যোনি চোষার বা ভোদা চোষা নিয়ে বিষয়ে কিছু তথ্য

নারীদের যোনি চুষলে তারাঅসাধারন যৌন অনুভূতি অনুভবকরে। তবে, সেক্সের শুরুতেইনারীদের যোনিতে চুমু না খেয়েতার যৌন কাতর স্থানগুলোতে(স্তন, যোনি, নিতম্ব, নাভীইত্যাদি)চলে গেলে তার ধারনাহতে পারে যে আপনি তাকে টাকাদিয়ে ভাড়া করে দ্রুত সেই টাকাউসুল করার চেষ্টা করছেন।গভীরভাবে ভালোবাসার সাথেসঙ্গিনীকে চুমু খাওয়া দুজনেরজন্যই প্রকৃতপক্ষে এক অসাধরনযৌনানন্দময় সেক্সের সূচনা করে।অনেকেই দাড়ি না কামিয়েসেক্স করেন, এই মনে করে যেআসলকাজ তো আমার হাত আরলিঙ্গের! কিন্ত যখন আপনারসঙ্গিনীকে চুমু খাবেন, তার স্তনচুষবেন, তার সারাদেহে জিহবাবুলাবেন এবং বিশেষ করে যখননারীদের যোনি চুষবেন তখনআপনার ধারালো খোচা খোচাদাড়ি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেইআপনার সঙ্গিনীকে আনন্দ নয় বরংঅসস্তি ও ব্যথা দেবে। তাইসেক্সের আগেভালোমত দাড়িকামিয়ে নেয়া উচিত।অনেক ছেলে নারীদের যোনিচোষাটা ঘৃন্য মনে করলেও বেশিরভাগ ছেলেই একবার মুখ দিয়েসেখানের স্বাদ অনুভব করার পরথেকে এর পরতি চরমভাবে আসক্তহয়ে পড়ে। এমনকি যারা যোনি মুখদেয়ওনা তারাও অন্তত হাত দিয়েহলেও মেয়েদের সবচাইতে গোপনস্থানটিকে বারবার আদর করারলোভ সামলাতে পারেন না।সেটা ঠিক আছে। কিন্ত অনেকেইএর প্রতি এতটাই আসক্ত হয়ে পড়েযে দেখাযায়, তার সঙ্গিনীর যেযোনি ছাড়াও যৌনসংবেদী প্রায়পুরো একটা দেহই রয়েছে সে কথাভুলে যায়। তাই সেক্সের শুরুতেইএমনকি বেশিরভাগ সময়ই মুখ দিয়েনা হলে হাত দিয়ে ঘুরেফিরেযোনিটাকেই বেশি উত্তেজিতকরার চেষ্টা করে। কিন্ত এর জন্যসঙ্গিনী পুরো সময়টাই অসহ্যবোধকরে কারন ছেলেদের মত শুধুলিঙ্গতে সুখ পেয়েই তারা এতসহজে যৌনত্তেজিত হতে পারেনা। মেয়েরা তাদের সারা দেহেইতার সঙ্গীর আদর পেতে চায়আমাদের দেশে অনেক ছেলেইনারীদের যোনি চুষতে চায় না ।অনেক সময় স্ত্রী বাগার্লফ্রেন্ডের অনুরোধেবহুকষ্টেযোনিতে মুখ দিলেও তা কোনমতেঘেন্নারসাথে হাল্কা পাতলাচুষে।এমনটি কখনোই কর যাবে না।এভাবে হাল্কা করে চুষতে গেলেসঙ্গিনী সে স্পর্শ সঠিকভাবেপাওয়ার জন্য আরো উতলা হয়েউঠে। ফলে সে স্বাদ পাওয়ার জন্যসে অন্যপুরুষের স্মরনাপন্ন হতেপারে। তাই একাজটা মনোযোগদিয়ে করতে হবে।সেক্সের সময় ছেলেদের একটা কথাসবসময়মনে রাখতে হবে যেমেয়েদের স্তন, যোনি আর নিতম্বএই তিনটিই তাদের একমাত্রযৌনকাতর স্থান নয়। ছেলেদের মূলযৌন কাতর অঙ্গ তাদের দেহেরমাত্র কয়েকটি স্থানের মধ্যেসীমাবদ্ধ থাকলেও মেয়েদেরপ্রায় পুরো দেহই স্পর্শকাতর।
Share:

অকাল বীর্যপাতের কারণ কি দেখেননি কাজে আসবে

অকাল বীর্যপাত বা দ্রুতস্খলনহলো যৌনসঙ্গমকালে পুরুষের দ্রুতশীঘ্রপতন যাকে ইংরেজিতে বলাহয় প্রিম্যাচিওরইজ্যাকিউলেইশন। এটি একটিসাধারণ যৌনগত সমস্যা । কিছুবিশেষজ্ঞের মতে প্রতি তিনজনপুরুষের মধ্যে একজনকে এ সমস্যায়আক্রান্ত হতে দেখা যায়[তথ্যসূত্রপ্রয়োজন]। স্ত্রী যোনীতেপুরুষাঙ্গ প্রবেশের পর অঙ্গ চালনারপরিণতি হিসেবে বীর্যপাত হয়েথাকে। যোনীতে লিঙ্গ প্রবেশেরসময় থেকে বীর্যপাত অবধি সময়কেবলা হয় বীর্যধারণ কাল। কতক্ষণঅঙ্গচালনার পর বীর্যপাত হবেতার কোন সুনির্দ্দিষ্ট বাআদর্শস্থানীয় সময় নেই। পুরুষেপুরুষে, বয়সের তারতম্যে বাপরিবেশভেদে বীর্যধারণ ক্ষমতাবিভিন্ন হতে দেখা যায়। তবেনিয়মিত যদি যোনীতে লিঙ্গপ্রবেশের পূর্বে বা অব্যবহিতপরেই অপ্রতিরোধ্যভাবেবীর্যপাত হয়ে যায় তবে তাদ্রুতস্খলন সমস্যা হিসেবেবিবেচিত হবে। এটি একটিযৌনসমস্যা কেননা এর ফলে পুরুষপ্রযোজনীয় সময় ধরে অঙ্গচালনারসুখ থেকে বঞ্চিত হয়। অপর দিকেঅকাল শীঘ্রপতননের দরূণ পুরুষাঙ্গনেতিয়ে পড়ে বলে অঙ্গ চালনাআর সম্ভব হয় না যার ফলে স্ত্রীরচরমানন্দ লাভের আগেই সঙ্গমেরসমাপ্তি হয়।বীর্যপাতের উপসর্গঅকাল শীঘ্রপতনের প্রধান লক্ষণহলো নারী-পুরুষ উভয়ের পুলকলাভের আগেই পুরুষের বীর্যপাতঘটে যাওয়া।বীর্যপাতের প্রকারভেদএ সমস্যাটি সাধারণত দু’ভাগেভাগ করা হয়ঃ প্রথমতঃ প্রাক-প্রবেশ অকাল বীর্যপাত যাতেস্ত্রী যোনীতে পুরুষাঙ্গ প্রবেশেরপূর্বে বীর্যপাত ঘটে যায়।দ্বিতীয়তঃ অঙ্গচালনার অব্যবহিতপরেই অকাল শীঘ্রপতন ।শীঘ্রপতনের কারণকী কারণে অকাল শীঘ্রপতন হচ্ছেতা নিরূপণ করতে বিশেষজ্ঞরাএখন পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়েযাচ্ছেন। এক সময় ধারণা করা হতোযে সমস্যাটি সম্পূর্ণ মানসিকব্যাপার। কিন্তু বর্তমানে আমরাজানি, দ্রুত বীর্যপাত হওয়া একটিজটিল ব্যাপার এবং এর সাথেমানসিক ও জৈবিক দু’টিরই সম্পর্করয়েছে।মানসিক কারণকিছু চিকিৎসক বিশ্বাস করেন[তথ্যসূত্র প্রয়োজন], প্রাথমিকবয়সে যৌন অভিজ্ঞতা ঘটলে তাএমন একটি ধরনে প্রতিষ্ঠিত হয় যে,পরবর্তী জীবনে সেটা পরিবর্তনকরা কঠিন হতে পারে। যেমনলোকজনের দৃষ্টি এড়ানোর জন্যতড়িঘড়ি করে চরম পুলকেপৌঁছানোর তাগিদ।অপরাধ বোধ, যার কারণেযৌনক্রিয়ার সময় হঠাৎ করেইবীর্যপাত ঘটে যায়।অন্য কিছু বিষয়ও আপনার দ্রুতবীর্যপাত ঘটাতে পারে। এর মধ্যেরয়েছে পুরুষত্বহীনতা যেসব পুরুষযৌনমিলনের সময় তাদের লিঙ্গেরউত্থান ঠিকমতো হবে কি না তানিয়ে চিন্তিত থাকেন, কিংবাকতক্ষণ লিঙ্গ উত্থিত অবস্থায়থাকবে তা নিয়ে দুশ্চিন্তায়ভোগেন সেসব পুরুষের দ্রুতবীর্যস্থলন ঘটে।দুশ্চিন্তা। দ্রুত বীর্যপাত হয় এমনঅনেক পুরুষের দ্রুত বীর্যপাতেরএকটি প্রধান কারণ দুশ্চিন্তা।সেটা যৌনকাজ ঠিকমতো সম্পন্নকরতে পারবেন কি না সে বিষয়েহতে পারে। আবার অন্য কারণেওহতে পারে।দ্রুত বীর্যপাতের আরেকটি প্রধানকারণ হলো অতিরিক্ত উত্তেজনা।সাধারণত প্রথম যৌনমিলনেরপূর্বে প্রবল উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।তাই প্রথম যৌনমিলনকালে পুরুষেরঅকাল বীর্যপাত হয়ে থাকে।শীঘ্রপতনের জৈবিক কারণবিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন[তথ্যসূত্র প্রয়োজন], কিছুসংখ্যকজৈবিক বা শারীরিক কারণে দ্রুতবীর্যপাত ঘটতে পারে। এসবকারণের মধ্যে রয়েছে:হরমোনের অস্বাভাবিক মাত্রামস্তিষ্কের রাসায়নিক উপাদানবা নিউরোট্রান্সমিটারেরঅস্বাভাবিক মাত্রাবীর্যস্খলন ব্যবস্থার অস্বাভাবিকক্রিয়াথাইরয়েড গ্রন্থির সমস্যাপ্রোস্টেট অথবা মূত্রনালীরপ্রদাহ এবং সংক্রমণবংশগত চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য।সার্জারি কিংবা আঘাতেরকারণে স্নায়ুতন্ত্রের ক্ষতি হওয়া।নারকোটিকস বা মাদক কিংবাদুশ্চিন্তার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধট্রাইফ্লুপেরাজিন প্রত্যাহার করাএবং অন্য মানসিক সমস্যা থাকা।আপনার ডক্টর হেল্থ সাইটে কোনপ্রকার অশ্লীল আর্টিকেল দেওয়াহয় না। মূলত যৌন জীবনকে সুস্থ্য,সুন্দর ও সুখময় করে তোলার জন্যজানা অজানা অনেক কিছু তুলেধরা হয়।এরপরও আপনাদের কোরপ্রকার অভিযোগ থাকলে ContactUs মেনুতে আপনার অভিযোগজানাতে পারেন, আমরাআপনাদের অভিযোগ গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করব। ধণ্যবাদআপনার ডক্টর হেল্থ সাইটের সাথেথাকার জন্য।
Share:

দেখেনিন ৬০ সেকেন্ডে কী ঘটে ইন্টারনেটে?

স্বাভাবিক দৃষ্টিতে প্রতিদিন বা মাসেইন্টারনেট ভিত্তিক বিভিন্ন সেবারমাধ্যমে কী পরিমাণ তথ্য আদান-প্রদান,ভিডিও দেখা বা ছবি আপলোড করা হয়,তার সঠিক পরিমাণ বলা মুশকিল।ইন্টারনেটে প্রতিদিন বা মাসে নয়, প্রতিমিনিটে কী ধরনের তথ্য লেনদেন ও অর্থব্যয় হয় তার একটি চার্ট সম্প্রতি প্রকাশকরেছে ইকোনমিক টাইমস।প্রতি মিনিটে ইন্টারনেটে কী কী ঘটেইকোনমিক টাইমসের তথ্যমতে,ইনস্টাগ্রামে প্রতি মিনিটে ৪৬ হাজারছবি শেয়ার করা হয়, ব্যয় করা হয় ৭ লাখ ৫১হাজার ৫২২ ডলার। ১৮ লাখ স্ন্যাপ সৃষ্টিরপাশাপাশি প্রতি মিনিটে টিন্ডারে ৯লাখ ৯০ হাজার সোয়াইপ গণনা করা হয়।ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা গুগলে প্রতিমিনিটে ৩৫ লাখ বার অনুসন্ধান করেন।ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউবে ৬০সেকেন্ডে ৪১ লাখ ভিডিও দেখা হয়।টুইটারের মাধ্যমে মিনিটে ৪ লাখ ৫২হাজার ২০০ টুইট করা হয়। ফেইসবুকে প্রতিমিনিটে ৯ লাখ বার লগইন করা হয়।মেসেঞ্জার ব্যবহার করে মিনিটে ১৫হাজার জিআইএফ পাঠানো হয়।
Share:

Welcome Tune Code Hero by Damn Yeasin & Nishi

Song : HeroSinger : Damn Yeasin and NishiLyric : YeasinTune and Music : AMITReleased Date : 19-10-2017Cast : Damn Yeasin, Mihi, Kazi and MoonDOP : Rajon Hossain andEditor : ShajibujjamanFollow Caller Tune/Wellcome Tune SetupProccess…Grameenphone : Type : WT space 6993710 Send to 4000.Robi : Type : GET space 6993710 Send to 8466 .Airtel : Type : CT space 6993710 Send to 3123.Teletalk : TT space 6993710 Send to 5000.
Share:

স্মার্টফোনে যে ফিচারগুলো আপনার অবশ্যই চালু রাখা উচিত

আপনি যদি এই পোস্টটি ওপেন করে থাকেন, তাহলে আমি চোখ বন্ধ করেই ধরে নিচ্ছি যে আপনার একটি স্মার্টফোন আছে। যদি না থাকে, তাহলে আপনার পরিবারের কারও না কারও তো নিশ্চয়ই আছে! যদি তাও না থাকে, নিকট ভবিষ্যতে তো অবশ্যই হবে, তাইনা? কেননা স্মার্টফোন ছাড়া আজকালজীবনযাপন করা বেশ কঠিন। কিন্তু এই ফোনের কিছু সেটিংস যদি আপনি চালু করেনা রাখেন, তাহলে হয়ত এর জন্য আপনাকে কঠিন মূল্য দিতে হতে পারে। আমি চাই আমার পাঠক/পাঠিকারা চমৎকার একটা ডিজিটাল লাইফ উপভোগ করুন। আর সেই প্রচেষ্টার ধারাবাহিকতায় আজকের এই পোস্ট। চলুন জেনে নিই আপনার নিজের নিরাপত্তার স্বার্থে স্মার্টফোনে যে ফিচারগুলো আপনার এখনই চালু করে নেয়া উচিত। ১. সিম পিন কোড অনেকে ভয়ে সিমের পিন কোড চেক ফিচার চালু রাখতে চান না। কারণ সাধারণত ৩ বার ভুল পিন কোড দিলে এরপর অন্য একটা সিক্যুরিটি কোড (পাক কোড) ছাড়া সিম কার্ড আর চালু করা যায়না। সিমের সাথে যে কাগজপত্র দেয়া হয় সেখানে এই পাক কোড লেখা থাকে। সিমের পিন কোড পরিবর্তন করে এরপর যদি পিন কোড ফিচার চালু করে দেন,তাহলে প্রতিবার ফোন চালু করার সময় পিন কোড এন্টার করতে হবে। অন্যথায় ঐ সিম চালু হবেনা। সুতরাং এ অবস্থায় আপনার ফোন যদি হারিয়ে যায়, তখন সিম কার্ড কেউ ব্যবহার করতে পারবেনা। কারণ এর পিন কোড শুধু আপনিই জানেন। পিন কোড ফিচার চালু করলে সেই সিম কোনো ফোনেই আর চালু হবেনা- যতক্ষণ পর্যন্ত সঠিক পিন এন্টার না হবে। ৩ বার ভুল পিন ও সাধারণত ১০ বার ভুল পাককোড দিলে সেই সিম স্থায়ীভাবে নষ্ট হয়ে যাবে। সুতরাং এই গুরুত্বপূর্ণ ফিচারটি চালু করে নিলে মোবাইলের অনাকাঙ্ক্ষিত ব্যবহারের হাত থেকে রেহাই পাবেন। ২. স্টোরেজ এনক্রিপশন স্মার্টফোন যদি আপনি পাসওয়ার্ড দিয়ে লক করেও রাখেন, তারপরেও বিশেষ উপায়ে এটা থেকে আপনার ছবি, ভিডিও ও যাবতীয় সংরক্ষিত ডেটা উদ্ধার করা সম্ভব। অনেককেই দেখেছি ফোন হারানো/খোয়ানোর পরে ‘ব্যক্তিগত’ ডেটা ফাঁস হওয়ার ভয়ে হাহাকার করছেন। কিন্তু স্ক্রিন লকের সাথে সাথে আপনি যদি ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজ এবং মেমোরি কার্ড- উভয় স্টোরেজই এনক্রিপ্ট করে রাখেন, তাহলে এনক্রিশন/ডিক্রিপশন পাসওয়ার্ড ছাড়াঐ ফোন এবং মেমোরি কার্ডের ডেটা উদ্ধার করা সম্ভব হবেনা। প্রাইভেসির জন্য এনক্রিপশন একটি জনপ্রিয় প্রযুক্তি, যা বাইপাস করে ডেটা উদ্ধার করা সাধারণ মানুষের কাজ নয়। তবে কোনো কোনো গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং সরকারি কর্তৃপক্ষেরকাছে এনক্রিপশন বাইপাসের কৌশল থাকতে পারে, যা আসলে কোনো কিছুর মাধ্যমেই বিরত রাখা সম্ভব নয়। ৩. জিপিএস ট্র্যাকিং ফোনের ডেটা ও লোকেশন/জিপিএস চালু থাকলে আপনি ‘ফাইন্ড মাই ডিভাইস’ জাতীয় ফিচার ব্যবহার করে ফোন কোথায় আছে তা ম্যাপেদেখতে পারবেন। তারপর আপনি চাইলে এর মধ্যে উচ্চশব্দে রিং বাজাতে পারেন এবং/অথবা সেটটি লক করে কিংবা এর ডেটামুছে ফেলতে পারবেন। কিন্তু চোর যদি আপনার ফোন ফ্যাক্টরি রিসেট দিয়ে দেয়,তাহলে জিপিএস ট্র্যাকিং আর কাজ করবেনা। ৪. অ্যাপ লকার আপনার ফোন যদি মাঝেমধ্যে অন্যদের হাতেও দিতে হয়, তাহলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ ডেটা সুরক্ষার জন্য অ্যাপ লকার ব্যবহার করতে পারেন। শাওমি সহ কিছু কিছু ফোনের ( আইফোন সহ) সেটিংসে অ্যাপ লকার ফিচার দেয়াই আছে যার মাধ্যমে ফোনের বিভিন্ন ফাংশন লক করে রাখতে পারবেন যা পাসওয়ার্ড/প্যাটার্ন/ফিঙ্গারপ্রিন্ট ছাড়া ওপেন করা যাবেনা। এছাড়া থার্ড পার্টি কিছু অ্যাপও আছে যার মাধ্যমে এই সুবিধাটি চালু করা যায়। সুতরাং এর মাধ্যমে আপনি আপনার প্রাইভেসির যথাযথ সুরক্ষা করতে পারবেন। ৫. অনলাইনে কনটাক্ট সিনক্রোনাইজেশন আপনার ফোনের কনটাক্টস, মেসেজ প্রভৃতি অনলাইনে সিনক্রোনাইজ করে রাখুন। প্রায় প্রতিটি ফোন নির্মাতা কোম্পানিই এই সেবাটি দিয়ে থাকে যার মাধ্যমে অনলাইনে ফোন নম্বর, মেসেজ, নোটস প্রভৃতি সংরক্ষণ করে রাখা যায়। এছাড়া এন্ড্রয়েডের জন্য ব্যবহার করতে পারেন গুগল কনটাক্টস অ্যাপ। আর আইফোনের জন্য আইক্লাউড তো আছেই। ৬. ক্লাউড ফাইল স্টোরেজ ফোন থেকে আপনার গুরুত্বপূর্ণ ফাইল, ডকুমেন্ট প্রভৃতি অনলাইনে আপলোড করে রাখতে পারেন। পরে ফোনের কোনো সমস্যা হলে আপনি আপনার সব ডেটা আবার অনলাইনে এক্সেস করতে পারবেন। এজন্য গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করতে পারেন। ৭. অনলাইনে ফটো ও ভিডিও আপলোড ফোনের স্টোরেজ যতই হোক, একদিন তা ঠিকই ফুরিয়ে যাবে (অর্থাৎ পূর্ণ হবে)। তখনযাতে কিছু চিরতরে হারাতে না হয়, সেজন্য অনলাইনে ফটো এবং ভিডিও সিনক্রোনাইজ করে রাখতে পারেন। এক্ষেত্রে গুগল ফটোস এবং/অথবা ফ্লিকার অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন। গুগল ফটোসে বিনামূল্যে আনলিমিটেড ফটো ও ভিডিও আপলোড করা যায় (রিসাইজকৃত)। ওয়াইফাই চালু করলে গ্যালারি থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই এগুলো অনলাইনে আপলোড হয়ে যাবে, যার প্রাইভেসির নিয়ন্ত্রণ আপনার হাতেই থাকবে। আর ফ্লিকারে আপনার ফুল রেজ্যুলেশনের ফটোগুলো আপলোড করে রাখতে পারেন মোট ১০০০জিবি স্পেস পর্যন্ত। অনলাইন ছাড়াও, অফলাইনে, অর্থাৎ আপনার কম্পিউটারেও এসব ডেটা ব্যাকআপ রাখতে পারেন, ফলে ফোন বেহাত হলেও আপনার দরকারী তথ্য আপনার হাতছাড়া হবেনা। কিছু কিছু ফোন, যেমন আইফোন অত্যন্ত শক্তিশালী এক্টিভেশনলক সিস্টেম প্রদান করে, যার মাধ্যমে সঠিক আইডি-পাসওয়ার্ড দিয়ে অনলাইনে সাইন-ইন না করলে ঐ ফোন আর ব্যবহার করাই যাবেনা। আইফোনের ক্ষেত্রে এটাকে আইক্লাউড লক ও বলা হয়ে থাকে। ফাইন্ড মাই আইফোন ফিচার অন করলে তাতেআইক্লাউড লক বা এক্টিভেশন লক নিজ থেকেই চালু হয়। এরকম অবস্থায় ফোন রিসেট দিতে গেলেও অ্যাপলে সাইন-ইন করা লাগে। সেক্ষেত্রে, যার অ্যাপল আইডি দিয়ে আইক্লাউড লক চালু করা হয়েছে, তার আইডি পাসওয়ার্ড দরকার হয়।এরকম এক্টিভেশন লক ওপেন না করতে পারলে ডিভাইসের পার্টস খুলে নেয়া ছাড়া অন্য কোনো কাজে একে ব্যবহার করাযায়না। আশা করি এই পোস্টটি আপনার কাজে লাগব
Share:

Total Pageviews